কলকাতা: আবারও রাজ্যপাল-মুখ্যমন্ত্রী মতের অমিল। এবার দিল্লির সংঘর্ষ নিয়ে মমতাকে বিঁধলেন জগদীপ ধনকড়। দিল্লির সংঘর্ষ নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্তব্যে জগদীপ ধনকড়ের পালটা ব্যাখ্যায় তৈরি হল বিতর্ক। হাওড়ার একটি অনুষ্ঠানে রাজ্যপাল বলেন, ‘বাছাই করে কোনও হিংসার নিন্দা প্রত্যাশিত নয়। সব ধরনের হিংসারই নিন্দা করা উচিত। এব্যাপারে রাজনৈতিকভাবে বিভেদ মেনে নেওয়া যায় না।’

পশ্চিমবঙ্গে রাজ্যপাল হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে আসার পর থেকেই রাজ্য সরকারের সঙ্গে একাধিক ইস্যুতে দ্বিমত তৈরি হয় রাজ্য সরকারের। কখনও শিক্ষাব্যবস্থা কখনও আইনশৃঙ্খলা নিয়ে রাজ্যের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন রাজ্যপাল।

প্রকাশ্যেই রাজ্যের বিরুদ্ধে মন্তব্য় করতে দেখা গিয়েছে জগদীপ ধনকড়কে। পালটা রাজ্যপালকে বিঁধেও মন্তব্য করেছেন রাজ্যের একাধিক নেতা-মন্ত্রী। খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও রাজ্যপালের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন।

সম্প্রতি রাজ্যপালের সঙ্গে সম্পর্কে শীতলতা তৈরি হয় রাজ্যের। রাজভবনে গিয়ে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে ফের তাল কাটল এবার। দিল্লির সংঘর্ষের তীব্র নিন্দা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রীয় সরকারের ব্যর্থতার জন্যই দিল্লির সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনা যায়নি বলে মন্তব্য করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই ইস্যুতেই এবার পালটা মুখ্যমন্ত্রীকে বিঁধলেন রাজ্যপাল।

সোমবারই নেতাজি ইন্ডোরে দলের সভা থেকে দিল্লির ঘটনাকে ‘পরিকল্পিত গণহত্যা’ বলে মন্তব্য করেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার কালিয়াগঞ্জের সভা থেকেও বিজেপিকে কড়া ভাষায় হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যেরই পালটা প্রতিক্রিয়া রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের। হাওড়ার অনুষ্ঠানে ধনকড় বলেন, ‘দিল্লির হিংসার নিন্দা করলে পশ্চিমবঙ্গের হিংসারও সমান নিন্দা করা উচিত মুখ্য়মন্ত্রীর’৷