কলকাতা: আবারও রাজ্য-রাজ্যপাল সংঘাত। ফের একবার রাজ্যের পদস্থ সরকারি আমলাদের দুষে টুইট রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের। সোমবার সকালে টুইটে ধনকড়ের তোপ, ‘‘এরাজ্যের একাংশের সরকারি আমলাদের সম্পত্তির পরিমাণ যেভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে ও তাঁরা দুর্নীতিতে জড়াচ্ছেন, সেই ঘটনা খুবই উদ্বেগের।’’

রাজ্যপালের দায়িত্ব নিয়ে এরাজ্যে আসার পর থেকেই নানা ইস্যুতে রাজ্য সরকারের সঙ্গে সরাসরি সংঘাতে জড়িয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। কখনও রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিয়ে মুখ খুলেছেন সরকারের বিরুদ্ধে।

কখনও আবার শিক্ষাক্ষেত্র নিয়ে ‘গেল-গেল’ রব তুলে সরব হয়েছেন রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে। এরাজ্যের পুলিশ ও প্রশাসনের একাংশের কর্তারা শাসকদল তৃণমূলের অঙ্গুলীহেলনে চলে বলেও তোপ দেগেছেন ধনকড়। একের পর এক টুইট, সাংবাদিক সম্মেলনে রাজ্যের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন।

রাজ্যপালের বিরোধিতা করে একাধিকবার সরব হয়েছেন রাজ্যের শাসকদলের নেতারাও। মন্ত্রী থেকে শুরু করে তৃণমূলের নেতারা রাজ্যপালকে বিজেপির এজেন্ট বলেও কটাক্ষ করেছেন। খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও রাজ্যপালের আচরণের কড়া নিন্দা করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে নালিশ জানিয়েছেন। যদিও এতকিছুর পরেও বিন্দুমাত্র দমতে নারাজ জগদীপ ধনকড়।

সোমবার সকালে ফের টুইট করে তোপ দাগলেন রাজ্যের সরকারি আমলাদের বিরুদ্ধে। টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘‘এরাজ্যের একাংশের সরকারি আমলাদের সম্পত্তির পরিমাণ যেভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে ও তাঁরা দুর্নীতিতে জড়াচ্ছেন, সেই ঘটনা খুবই উদ্বেগের।’’ এরই পাশাপাশি রাজ্যের পুলিশ বিভাগের একাংশের কর্তাদের সমালোচনা করে তিনি আরও লিখেছেন, ‘‘উর্দিধারীদের দুর্নীতির পর্দা ফাঁস করতে হবে। তাঁদের বেআইনি সম্পত্তির খোঁজ করতে হবে।’’

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনাকালে বিনোদন দুনিয়ায় কী পরিবর্তন? জানাচ্ছেন, চলচ্চিত্র সমালোচক রত্নোত্তমা সেনগুপ্ত I