স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: মাও কার্যকলাপের সময় হারিয়েছেন প্রিয়জনকে৷ সেই ‘শহিদ ও নিখোঁজ’ ব্যক্তিদের পরিবারগুলির জন্য সরকারি ক্ষতিপূরণের দাবিতে আন্দোলনে নামল ‘শহিদ ও নিখোঁজ পরিবারের যৌথ মঞ্চ’। সোমবার এই মঞ্চের সদস্যরা বাঁকুড়া জেলা শাসকের দফতরে ডেপুটেশন দেন ও মাচানতলায় পথ অবরোধে অংশ নেন।

তাঁদের দাবি পূরণ না হলে তারা ফের আন্দোলনের হুমকি দিয়েছেন৷ এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে পুলিশের সাথে আন্দোলনকারীদের ধ্বস্তাধ্বস্তি হলেও কিছুক্ষণের মধ্যে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

তাদের দাবি, মাওবাদী কার্যকলাপে যুক্ত ব্যক্তিরা সরকারি চাকরি পেলেও তাদের হাতে আক্রান্ত, শহিদ ও নিখোঁজ পরিবারগুলির সদস্যরা কোন সরকারি সুযোগ সুবিধা পাননি। ২০১২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মাও আক্রমনে নিহত ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলিকে সরকারি চাকরি ও অন্যান্য সাহায্যের কথা ঘোষণা করলেও, বেশিজন সেই সুবিধা পাননি বলে অভিযোগ৷

তাদের দাবি, অবিলম্বে ঐ ঘটনায় ‘শহিদ’ পরিবারগুলিকে কেন্দ্রের ১০ লাখ ও রাজ্যের তরফে ৫ লাখ ক্ষতিপূরণ, পরিবারপিছু এক জন চাকরী, নিখোঁজ ব্যক্তিদের মৃত ঘোষণা করে তাদের মৃত্যুশংসাপত্র দেওয়া, কৃষি ঋণ মুকুব, ঐ ঘটনায় শারিরিকভাবে অক্ষমদের সরকারি সাহায্য, ঘরছাড়াদের পুনর্বাসন, সিবিআই তদন্ত সহ মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার দাবি জানানো হয়েছে।