জলপাইগুড়ি: সরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের ছাত্রের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ালো জলপাইগুড়ি শহরে। সোমবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে জলপাইগুড়ি গভর্মেন্ট ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের তিন নম্বর হোস্টেলে। মৃত ছাত্রের নাম রবি গুপ্তা (২২)। বাড়ি পুরুলিয়া জেলায়। রবি কলেজের কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র ছিলেন। কলেজের পক্ষ থেকে রবির পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে জলপাইগুড়ি কোতোয়ালি থানার পুলিশ৷

কলেজ পড়ুয়ার অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক নীতীশ খান্ডেলিয়াল জানান,গত ১৭ ডিসেম্বর চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষা শেষ হয়েছে। ৩ নম্বর হোস্টেলে তাঁরা সকলে আবাসিক হিসেবে থাকেন। রবিবার  রাত থেকে ভোর চারটা পর্যন্ত অনেক আবাসিক ছাত্ররাই গল্প-আড্ডায় মজেছিলেন। কিন্তু, সোমবার সকালে একটু দেরি করেই সকলে ঘুম থেকে ওঠেন। কিন্তু পরদিন রবিকে রুম থেকে বের হতে না দেখে বন্ধুদের সন্দেহ হয়৷ ডাকাডাকিও করা হয় তাঁকে৷ কিন্তু, উত্তর না মেলায় কলেজের অধ্যক্ষকে জানানো হয়। পরে রবির রুমের দরজাও ভাঙা হয়৷ এরপর তাঁরা বন্ধুরা দেখতে পান, বিছানায় শুয়ে রয়েছেন তিনি৷ কিন্তু কোনও সাড়াশব্দ নেই রবির। এরপরই অ্যাম্বুলেন্স ডেকে জলপাইগুড়ি জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। চিকিৎসকেরা রবিকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

কলেজের অধ্যক্ষ অমিতাভ রায় জানান,রবি খুবই মেধাবী ছাত্র ছিলেন৷ রবিবার সময়মতো নিজের রুমে ঘুমাতেও গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু, রবির এই অকস্মাৎ মৃত্যুতে তাঁরা শোকাহত।

এদিকে রবিকে হাসপাতালে নিয়ে আসার পর মুখ দিয়ে গ্যাঁজলা বের হতে দেখা যায়। শরীর শক্ত হয়ে গিয়েছিল। জেলা হাসপাতালের সুপার গয়ারাম নস্কর জানান, মঙ্গলবার মৃতদেহের ময়না তদন্ত করা হবে। কারণ পুলিশ তদন্ত রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করছেন তাঁরা। জলপাইগুড়ি কোতোয়ালি থানার আইসি আশিস রায় জানিয়েছেন, ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের ছাত্রের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনার তদন্তে তাঁরা নেমেছেন। এদিন বিকেলেই তাঁরা কলেজে রবির রুমের খুঁটিনাটি খতিয়ে দেখে। কিছু নমুনাও সংগ্রহ করেছে তদন্তকারীরা।

উল্লেখ্য, ২০১০-১১ সালে এই কলেজের চতুর্থ বর্ষের একই ৩ নম্বর হোস্টেলে মনজিৎ দাস নামে এক ছাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু হয়। যদিও, পরে ময়না তদন্তের রিপোর্টে মনজিৎ অত্যধিক মাদক সেবন করার কারণে মৃত্যু হয়। এদিকে, এদিন রবি গুপ্তার মৃত্যুর পেছনে কি কারণ থাকতে পারে তা ময়না তদন্তের রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত বলা কঠিন।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও