নয়াদিল্লি:  সামনেই দিওয়ালি। আর তার আগেই কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল অর্থাৎ জম্মু, কাশ্মীর এবং লাদাখের সরকারি কর্মচারীরা বড়সড় সুবিধা পেলেন। এবার থেকে সপ্তম বেতন কমিশনের সমস্ত সুপারিশের সুবিধা ভোগ করবেন এই সমস্ত এলাকার সরকারি কর্মচারীরা। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে দেওয়া এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, নতুন তৈরি হওয়া এই সমস্ত কেন্দ্র শাসিত রাজ্যগুলির কর্মীরাও এবার সপ্তম কমিশনের সমস্ত সুবিধা পাবেন। এমনকি কমিশনের সুপারিশ মেনে যে সমস্ত ভাতা ঘোষণা হয় তাও এবার থেকে পাবেন এই সমস্ত কর্মীরা।

জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখে প্রায় ৪ লক্ষেরও বেশি সরকারি কর্মী রয়েছেন। যারা দীর্ঘদিন জম্মু-কাশ্মীরের রাজ্য সরকারি কর্মী হিসাবে কর্মরত ছিলেন। কিন্তু এই সমস্ত এলাকাগুলিকে কেন্দ্রের অধীনে নিয়ে আসার ফলে এই সমস্ত কর্মীরাও এখন কেন্দ্রের অধীনে রয়েছে। আর তাই দিওয়ালির আগেই এই সমস্ত কর্মীদের জন্যে বড়সড় উপহার ঘোষণা করল মোদী সরকার। সরকারের এই ঘোষণায় খুশি এই সমস্ত সরকারি কর্মচারীরা। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীরা এখন যেভাবে এডুকেশন ভাতা, হোস্টেল ভাতা, ট্রান্সপোর্ট ভাতা সহ একাধিক সুযোগ সুবিধা পান তাঁরাও এবার এই সমস্ত ভাতা পাওয়ার অধিকারী হলেন।

উল্লেখ্য, গত কয়েকমাস আগে আর্টিকল ৩৭০ তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। অন্যদিকে, কাশ্মীরের লাদাখ ডিভিশনে বহু মানুষ বাস করেন। তাঁরা খুব দুর্গম জায়গায় বসবাস করেন। তাই তাঁদের অনেক দিনের দাবি, যাতে লাদাখকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা করা হয়। তাই লাদাখকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা করা হয়। জানানো হয় সেখানে কোনও বিধানসভা থাকবে না।

আর এরপরে জম্মু-কাশ্মীর, লাদাখকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসাবে ঘোষণা করা হয়। আর এরপর থেকেই সেখানকার মানুষেরা সমস্ত কেন্দ্রের সুযোগ সুবিধা ভোগ করছেন। এবার সেই সমস্ত অঞ্চলের সরকারি কর্মীরাও একজন কেন্দ্রীয় কর্মীরা যা আর্থিক সুফল ভোগ করেন তাই পাবেন। চলতি মাস অর্থাৎ ৩১ অক্টোবর থেকেই নয়া এই নির্দেশিকা লাঘু হবে বলে জানানো হয়েছে।