নয়াদিল্লি: কিছুদিন আগেই চিনা ৫৯ টি অ্যাপ ব্যান করেছিলেন কেন্দ্রীয় সরকার। যার জেরে ভারতে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল টিকটক, ক্যাম স্ক্যানার থেকে শুরু করে একাধিক অ্যাপ ব্যবহার। ব্যান করা হয়েছিল নিরাপত্তার খাতিরে। যার জেরে একাধিক ব্যবহারকারীরা হারিয়েছে টিকটক। তবে এবারে এই টিকটকের নাম নিয়ে শুরু হয়েছে সাইবার অপরাধ। আর যা থেকে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে সকলকে।

লকডাউনের পরেই একাধিক সাইবার বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছিলেন যে ক্রমেই বাড়বে সাইবার অপরাধের সংখ্যা। আর সেই কারণেই সকলকে আরও সতর্ক থাকতে জানানো হয়েছে। জানা গিয়েছে সাইবার অপরাধীরা মেসেজের মাধ্যমে সাধারণকে বোকা বানানোর এক নয়া পরকল্পনা গ্রহন করেছে।

টিকটকের নতুন ভার্শনের নাম বলে তারা মেসেজ পাঠিয়ে সাধারণকে বোকা বানানোর চেষ্টা করে চলেছে বলে জানা গিয়েছে। ব্যবহারকারীদের সাইবার অপরাধীরা নতুন ভাবে মেসেজ করছে যাতে লেখা থাকছে ভারতে ফের পাওয়া যাচ্ছে টিকটক তবে এক নতুন নামে। আর তা হল টিকটক প্রো। এমনিতেই ভারতে যথেষ্ট জনপ্রিয় ছিল এই টিকটক। আর সেই কারণেই মানুষের আবেগ কে কাজে লাগিয়ে এই ভুয়ো মেসেজের মাধ্যমে প্রতারণা করার নয়া ছক কষেছে সাইবার অপরাধীরা।

পাশাপাশি টিকটকের নয়া ভার্শন ডাউনলোডের জন্য মেসেজের সঙ্গে একটি করে লিঙ্ক ও দেওয়া থাকছে। আর বলা হচ্ছে ওই লিঙ্ক থেকে টিকটক ডাউনলোড করতে। একাধিক টুইটার ব্যবহারকারীরাও এই মেসেজ পেয়েছেন। জানানো হয়েছে একবার যদি কেউ এই লিঙ্ক থেকে ডাউনলোড করেন সেক্ষেত্রে ওই নয়া অ্যাপ ফোনের বেশ কিছু ফিচার দেখার অনুমতি চাইবে।

ক্যামেরা মাইক সহ বেশ কয়েকটি ফাইল। সেই অনুমতি পাওয়া হয়ে গেলে অ্যাপটি ফোনে থেকে যাবে। যদিও জানা গিয়েছে এই মুহূর্তে গুগল প্লে স্টোর থেকে এই মুহূর্তে ওই অ্যাপ ডাউনলোড করা যায় না। অন্য কোথাও থেকে নয়। তবে যাতে কেউ কোন বিপদের মধ্যে না পরেন সেই কারণে ই মেসেজ কেউ পেলে তা এড়িয়ে যেতেই বলেছেন বিশেষজ্ঞরা। যাতে কারো কোন আর্থিক ক্ষতি না হয়।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ