কলকাতা: কর্তৃপক্ষকে বারবার জানিয়েও লাভের লাভ কিছুই হয়নি। উধাও হয়ে যাওয়া কিংবদন্তি গোষ্ঠ পালের পদ্মশ্রী সহ বেশ কিছু সম্মান ফুটবলারের পরিবারকে ফিরিয়ে দিতে অপারগ মোহনবাগান ক্লাব। তাই অভিমানে দিনকয়েক আগে গোষ্ঠ পালের মৃত্যুদিবসে তাঁর মোহনবাগান রত্ন ক্লাবকে ফিরিয়ে দিয়েছিল গোষ্ঠ পালের পরিবার।

ঘটনার পর বিষয়টির পুঙ্খনাপুঙ্খ তদন্ত চেয়ে একটি বিশেষ তদন্তকমিটি গঠন করে মোহনবাগান ক্লাব কর্তৃপক্ষ। তদন্ত কমিটির তরফ থেকে গোষ্ঠ পালের পরিবারের কাছে ক্লাবকে জমা দেওয়া সমস্ত সম্মানের তালিকা চেয়ে পাঠানো হয়। কোন সালে ক্লাবের হাতে গোষ্ঠ পালের পরিবারের তরফ থেকে সম্মানগুলি তুলে দেওয়া হয়েছিল, তা জানতে চেয়ে গোষ্ঠ পালের পরিবারের কাছে বার্তা যায় ক্লাবের তরফ থেকে।

আরও পড়ুন: অপমানে মোহনবাগান রত্ন ফিরিয়ে দিল গোষ্ঠ পাল পরিবার

বৃহস্পতিবার তারই প্রত্যুত্তরে ক্লাবকে পুনরায় মেইল করা হল গোষ্ঠ পালের পরিবারের তরফ থেকে। ক্লাবের তরফ থেকে জানতে চাওয়া সমস্ত প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার পাশাপাশি গোষ্ঠ পালের মাতৃসম ক্লাবকে পুনরায় তাঁর সম্মান ফিরিয়ে দেওয়ার অনুরোধ জানান পুত্র নীরাংশু পাল। একইসঙ্গে হারানো পুরস্কার তালিকাও মেইল করা হয় ক্লাবকে।

আরও পড়ুন: চোটের জন্য রেকর্ড হাতছাড়া রোহিতের

মেইলে জানানো হয় ২০ অগাস্ট ১৯৯২ গোষ্ঠ পালের শেষ ইচ্ছাকে সম্মান জানিয়ে পদ্মশ্রী সম্মান তাঁর মাতৃসম ক্লাবের হাতে তুলে দেন আত্মীয়রা৷ অঞ্জন মিত্র সহ একাধিক কর্তাব্যক্তিদের উপস্থিতিতে তৎকালীন মোহনবাগান সচিবের হাতে সেই সম্মান তুলে দেওয়া হয়েছিল। সম্মান গ্রহণ করে প্রাপ্তিস্বরূপ তৎকালীন ক্লাবের মাঠ-সচিব একটি স্বাক্ষরিত চিঠি তুলে দিয়েছিলেন গোষ্ঠ পালের পরিবারের হাতে। সেই চিঠির কপিও মেইলে মোহনবাগান ক্লাব সচিবকে পাঠান নীরাংশু পাল।

আরও পড়ুন: সিঙ্গাপুর ওপেনের শেষ আটে সিন্ধু

নীরাংশু বাবু আগেই জানিয়েছিলেন পদ্মশ্রী সম্মান ক্লাবের হাতে তুলে দেওয়ার পরিবর্তে ছোট্ট প্রতিশ্রুতি পেয়েছিলেন তাঁরা৷ মোহনবাগান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল-ক্লাবের উদ্যেগেই তৈরি হবে সংগ্রহশালা৷ যোগ্য সম্মানে সেখানেই সংরক্ষিত থাকবে গোষ্ঠ পালের মহামূল্যবান স্মৃতি স্মারক ও পদ্মশ্রী পদক৷ কিন্তু সেসব তো হয়ইনি বরং মোহনবাগান রত্ন ফিরিয়ে দেওয়া প্রসঙ্গে নীরাংশুবাবু ফোনে জানিয়েছিলেন, ‘বাবার পদকের খোঁজ দিতে পারছে না ক্লাব৷ একমাস আগে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল৷ ক্লাবের কিংবদন্তির কী এই সম্মান প্রাপ্য৷’

আরও পড়ুন: রোনাল্ডোর গোলে মানরক্ষা জুভেন্তাসের

ক্লাবের অধীনে থাকা বাবার পদ্মশ্রী সম্মান ফিরে পাওয়ার আর কোনও আশা দেখছেন না নীরাংশুবাবু৷ তবু ক্লাবের তরফ থেকে জানতে চাওয়া প্রশ্নের উত্তর দিয়ে আরও একবার পদ্মশ্রী সম্মানের খোঁজ চেয়ে ক্লাবকে তা ফিরিয়ে দেওয়ার অনুরোধ জানান নীরাংশু বাবু। আর দেশের প্রথম ফুটবলার হিসেবে গোষ্ঠ পালের পদ্মশ্রী সম্মান খুঁজে না পাওয়া গেলেও ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানানো হয়েছে ক্লাবকে।