নয়াদিল্লি ও কলকাতা;   অবশেষে রানাঘাট-কাণ্ডে আদালতে গোপন জবানবন্দি দিলেন নির্যাতিতা সন্ন্যাসী। সোমবার দিল্লির পাতিয়ালা হাউস আদালতে রানাঘাট-কাণ্ডের গোপন জবানবন্দি দেন তিনি। অন্যদিকে লুধিয়ানায় ধৃত ৭ বাংলাদেশিকে কলকাতায় আনার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। রবিবারই রানাঘাট-কাণ্ডে গোপন জবানবন্দি দিতে রাজি হন আক্রান্ত সন্ন্যাসিনী। সেটা দিল্লিতেই দেওয়ার অনুরোধ জানান তিনি। কারণ নির্যাতিতা সন্ন্যাসিনীকে গোপন জবানবন্দি দেওয়ার আবেদন জানিয়েছিলেন গোয়েন্দারা।
প্রসঙ্গত, গত শনিবার দিল্লিতে গিয়ে ওই সন্ন্যাসিনীর সঙ্গে কথা বলে আসেন রাজ্য সিআইডির গোয়েন্দারা। সেখানে গিয়েই আদালতে যাওয়ার আবেদন জানানো হয় তাঁকে। উল্লেখ্য, আক্রান্ত হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পরই সোজা রাজ্য ছেড়ে দিল্লি চলে যান ওই সন্ন্যাসিনী। সেখানকার একটি আশ্রমে রয়েছেন তিনি। প্রথমে রাজ্য সিআইডি ও পরে লুধিয়ানা পুলিশ এই ঘটনায় অভিযুক্ত বেশ কয়েকজন বাংলাদেশিকে গ্রেফতার করেছে। এছাড়া কয়েকজন অভিযুক্তের নামে লুক আউট নোটিশ জারি হয়েছে। ২০ মার্চ রাতে রানাঘাটের ওই কনভেন্ট স্কুলে পাঁচিল টপকে ঢুকে লুঠ চালানোর পাশাপাশি, স্কুলের সত্তরোর্ধ্ব সিস্টারকে ধর্ষণ করে দুষ্কৃতীরা।