ছবি- প্রতীকী

ওয়াশিংটন:  গুগল টেকআউটে ইউজারদের জন্যে বড় বিপত্তি। বৃহত ইউজারদের ব্যক্তিগত ভিডিও চলে গিয়েছে একটা বিশাল অংশের অপরিচিত ব্যক্তিদের কাছে। এত বড় বিপত্তি ঘটেছে শুধুমাত্র ভুলবশত। ইতিমধ্যে গুগলের তরফে ব্যক্তিগত ভিডিও ফাঁস হওয়ার ঘটনাটি স্বীকার করে নেওয়া হয়েছে।

বলা হয়েছে, প্রযুক্তিগত সমস্যার কারণে এত্ত বড় বিপত্তি ঘটেছে। গুগলের এহেন স্বীকারোক্তি ঘিরেই তীব্র চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমানে গোটা বিশ্বের কয়েকশ কোটি মানুষ গুগলের ফটো সার্ভিস ব্যবহার করেন। সেখানে অনেক ব্যক্তিগত ফটো থাকে। ফলে তা ফাঁস হয়ে গেল অনেকেরই গোপন তথ্য বেরিয়ে আসবে। ফলে প্রবল সমস্যা বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।

গুগলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, যে সমস্ত ব্যক্তিদের ভিডিও অন্যদের কাছে চলে গিয়েছে, তাঁদের ইতিমধ্যে গুগলের তরফ থেকে ই-মেল করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। যদিও এখনও পর্যন্ত কত মানুষের গোপন ভিডিও ফাঁস হয়েছে তা এখনও জানানো হয়নি। যদিও গুগলের দাবি, ০.০১ শতাংশেরও কম ব্যক্তির ভিডিও ফাঁস হয়েছে। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের কাছে ক্ষমাও চাওয়া হয়েছে।

গুগলের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন গতবছর অর্থাৎ ২০১৯ সালে এই বড় সমস্যাটি তৈরি হয়েছে। তিনি জানাচ্ছেন, ২১ থেকে ২৫ নভেম্বরের মধ্যে সমস্যা হয়। সেই কারণে যাঁরা গুগল টেকআউট ব্যবহার করেন তাঁদের অনুরোধ করা হচ্ছে, ওই দিনগুলির মধ্যে গুগলে তাঁরা যে ছবিগুলি রেখেছিলেন, সেগুলি যেন সরিয়ে ফেলেন। অনেকেই অসম্পূর্ণ ছবি বা ভিডিও পেয়ে থাকতে পারেন যেগুলি তাঁদের নয়। যদিও ইতিমধ্যে এই সমস্যা মেটাতে যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে কাজ করা হচ্ছে। আগামিদিনে যাতে এই সমস্যা তৈরি না হয় সেজন্যেও কাজ করা হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে।