স্টাফ রিপোর্টার, তমলুক: ভারতী ঘোষ ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী তথা সাংসদ দীপক অধিকারীর উপর একাধিক অভিযোগ এনেছিল৷ সেই সব অভিযোগের যোগ্য জবাব দিল প্রার্থী দীপক অধিকারী৷

তিনি বলেন, ‘‘যদি ওনার অভিযোগ সত্যি হয়, তাহলে তো এটাও সত্যি যে সিবিআই ইলেকশনের আগে বা ওই সময়ে রাজ্যকে বিরক্ত করছে৷ তখন আমাদের বলা হয়েছিল সিবিআই তার মতো কাজ করছে৷ তাহলে আমরাও বলতে পারি সিআইডি তার মতো কাজ করছে৷ উনি তো দেড় বছর ছিলেন না৷ সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পর সিআইডি তার কাজ করেছে৷’’

সাংসদ প্রচার প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘আমি বুঝতে পারি প্রচারে অনেক চাপ থাকে। ১২মে এখনও দেরি আছে। আমি দেখতে পাচ্ছি উনি অনেক পরিশ্রম করছেন। সকলেই পরিশ্রম করছি। প্রধানমন্ত্রী থেকে মুখ্যমন্ত্রী সকল কর্মী প্রচারে ব্যস্ত। তার মধ্যে মানুষ যাকে চাইবে, যাকে বেশি ভালোবাসবে তাকে ভোট দেবে।’’

রাজ্য জুড়ে হিংসা প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘আমি আবারও বলছি এইসব রাজনীতি আমার একেবারেই পছন্দ নয়। যেই করুক না কেন। যদি আমার দল করে থাকলেও তা ঠিক নয়। ওনার দল করলেও তা ঠিক নয়। ভয় দেখিয়ে ভোট নেওয়া যায় না। উন্নয়ন নিয়ে রাজনীতি হলে আমরা অনেক এগিয়ে আছি। তাই উন্নয়ন নিয়ে লড়াই হোক। এর জন্য ভালো লোকের রাজনীতিতে আসার দরকার। ভালো লোকের সংখ্যা বাড়া উচিত।’’

দেবের জনসভা ঘিরে পরিচিত উন্মাদনা দেখা গেল পাঁশকুড়ার বিভিন্ন প্রান্তে। এদিন মেদিনীপুরে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর পাঁশকুড়ার গোবিন্দনগর গ্রাম পঞ্চায়েতের গোপালপুর গ্রামের জনসভায় ভিড় কার্যত উপচে পড়েছিল। এছাড়া বাহারপোতার সভাতেও এলাকাবাসীর ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।