ফাইল ছবি৷

নয়াদিল্লি: ২০২৪ সালের মধ্যে ভারতকে ৫ ট্রিলিয়ন ডলারের অর্থনীতি গড়া চ্যালেঞ্জ হলেও তা করা সম্ভব৷ নীতি আয়োগের বৈঠকে এমনটাই দাবি করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ শনিবার তাঁর পৌরহিত্যে রাষ্ট্রপতি ভবনে নীতি আয়োগের পঞ্চম বৈঠক হয়৷

তিনি এদিন দাবি করেন, নীতি আয়োগের একটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে ‘‘সবকা সাথ, সবকা বিকাশ, সবকা বিশ্বাস’’ পূরণ করার ব্যাপারে৷ তিনি জানান,সম্মিলিতভাবে দারিদ্র, বেকারি, খরা, বন্যা , দূষণ, দুর্নীতি এবং জুলুমের বিরুদ্ধে লড়া হবে৷

প্রধানমন্ত্রী জানান, নীতি আয়োগের মাধ্যমে প্রত্যেকে তাদের সাধারণ লক্ষ্য পূরণ হবে নয়াদিল্লিতে ২০২২ সালে ৷ প্রধানমন্ত্রী বর্ণনা করেন, স্বচ্ছ ভারত অভিযান এবং প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা কেন্দ্র এবং রাজ্য একসঙ্গে কি করতে পারেন তারই চিত্রাবলী।

প্রধানমন্ত্রী জানান, ক্ষমতায়ন এবং সহজ জীবনযাপন সকল ভারতীয়ের জন্য ব্যবস্থা করা হচ্ছে৷ মহাত্মা গান্ধীর ১৫০ বছরে যে লক্ষ্য ধরা হয়েছিল তা আগামী ২অক্টোবর সম্পন্ন করা উচিত এবং ২০২২ সালে ৭৫ বছরের স্বাধীনতায় সেই লক্ষ্য পূরণের জন্য তা কাজ শুরু করা উচিত৷

মোদী জোর দিতে চান যাতে যৌথ দায়িত্বে নজর দিয়ে স্বল্পমেয়াদী এবং দীর্ঘমেয়াদী লক্ষ্য পূরণ হয়৷ দেশের বিভিন্ন স্থানে যেভাবে খরার মুখোমুখি হতে হচ্ছে তারজন্য কৌশলী পদক্ষেপ নিতে চান যাতে প্রতি জলবিন্দু থেকে বেশি ফসল ফলানো যায়৷ প্রধানমন্ত্রী জানান, নতুন জল শক্তিমন্ত্রক গড়ে জল সমন্বিত পদ্ধতির মাধ্যমে সহায়তা করা হবে এবং রাজ্যগুলি নানা রকম সমন্বয় পদ্ধতির মাধ্যমে জল সংরক্ষণ ব্যবস্থাপনা করবে ৷