পানাজি: বড়সড় সাফল্য। রেভ পার্টির ডেরা ভাঙল গোয়া পুলিশ। ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে ইতিমধ্যেই ২৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। দায়ের করা হয়েছে এফআইআর। পুলিশ জানিয়েছে, ৯ লাখের বেশি টাকার মাদকদ্রব্য বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এফআইআর দায়ের করা হয়েছে।

তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। শনিবার রাতে গোপনসূত্রে খবর পেয়ে হঠাতই হানা দেয় পুলিশ। সমুদ্র সৈকতের রিসোর্ট থেকে হাতেনাতে ধরে ফেলা গিয়েছে অনেককে। আরও যারা এই ঘটনায় যুক্ত রয়েছে তাঁদের খোঁজ শুরু করেছে পুলিশ। ইতিমধ্যেই এই বিষয়ে শুরু হয়েছে তদন্ত। গোয়ার ভাগাতোর জেলার ফ্রাঙ্গিপান্নি বিলাসে শনিবার রাতে রেভ পার্টির ডেরা ভেঙেছে পুলিশ। যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তাঁদের মধ্যে রয়েছে বহু বিদেশি।

পুলিশ একটি বিবৃতিতে জানিয়েছে, “তন্নতন্ন তল্লাশি অভিযানে নারকোটিক্স ড্রাগ-কোকেন, এমডিএমএ, এক্সত্যাসি ট্যাবলেট এবং চরস বিশাল পরিমাণে উদ্ধার করা হয়েছে। যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তাঁদের মধ্যে তিনজন বিদেশি মহিলা”।

মানুষের সুরক্ষাকে বিপদে ফেলে করোনা অতিমারির পরিস্থিতিতে পার্টি অরগানাইজ করা হয়েছিল। নারকোটিক্স ড্রাগস এন্ড সাইকোট্রিপিক সাবট্যান্স অ্যাক্ট ১৯৮৫ অনুযায়ী তাঁদের গ্রেফতার করা হয়েছে। কিছুদিন আগে বড়লোক পরিবারের ছেলেমেয়েরা যখন আন্ডারগ্রাউন্ড পার্টি পরিচালনা করেছিল সে বিষয়ে করা পদক্ষেপ নিয়েছিল প্রশাসন।

প্রসঙ্গত, গোয়ায় করোনা ভাইরাসের প্রকোপে রীতিমতন তলানিতে ঠেকেছে পর্যটন শিল্প। আপাতত বন্ধ অনেক রোজগারের পথ। গোয়ার মতন জায়গায় যা যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। এমন পরিস্থিতিতে কিভাবে রেভ পার্টি চলছিল সে বিষয়ে স্বাভাবিকভাবে প্রশ্ন উঠছে। ইতিমধ্যেই কৃষিকাজ এবং ফিসিংকে আরও গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। তবে পর্যটনকে কেন্দ্র করে কোনও ভাবনাই অতিমারি শেষ না হওয়া অবধি করা যাবে না।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।