ম্যাঞ্চেস্টার: নাটকীয় জয়ে ওয়ান-ডে সিরিজ জিতে টি২০ সিরিজে হারের বদলা নিল অস্ট্রেলিয়া। বুধবার ম্যাঞ্চেস্টারে সিরিজের অন্তিম ওয়ান-ডে ম্যাচে ৩ উইকেটে নাটকীয় জয় ছিনিয়ে নিল অজিরা। সৌজন্যে অ্যালেক্স ক্যারি এবং গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের জোড়া শতরান। ষষ্ঠ উইকেটে এই দুই ব্যাটসম্যানের রেকর্ড ২১২ রানের পার্টনারশিপে দু’বল বাকি থাকতেই ইংল্যান্ডের ছুঁড়ে দেওয়া ৩০৩ রানের লক্ষ্যমাত্রা ছুঁয়ে ফেলে অস্ট্রেলিয়া।

সিরিজের প্রথম দু’ম্যাচে দু’দল একটি করে জয় তুলে নেওয়ায় ম্যাঞ্চেস্টারে বুধবারের তৃতীয় ওয়ান-ডে নির্ণায়ক হয়ে দাঁড়ায়। টস জিতে নির্ণায়ক ম্যাচে এদিন প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন ইংরেজ অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান। বিধ্বংসী মেজাজে শুরু করেছিলেন অজি ফাস্ট বোলার মিচেল স্টার্ক। বল হাতে ইনিংসের প্রথম দু’বলেই বাঁ-হাতি পেসার প্যাভিলিয়নে ফিরিয়ে দেন জেসন রয় এবং জো রুটকে। ক্রিজে থিতু হতে পারেননি অধিনায়ক মর্গ্যান কিংবা উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান বাটলার।

সবমিলিয়ে ৯৭ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যাওয়া ইংল্যান্ডকে টেনে তোলেন ক্রিজ আঁকড়ে পড়ে থাকা ওপেনার জনি বেয়ারস্টো এবং স্যাম বিলিংস। পঞ্চম উইকেটে বিলিংসের সঙ্গে বেয়ারস্টোর ১১৪ রানের পার্টনারশিপ বড় রান গড়ার লক্ষ্যে এগিয়ে দেয় ইংল্যান্ডকে। ওয়ান-ডে ক্রিকেটে দশম সেঞ্চুরিটি পূর্ণ করেন বেয়ারস্টো। অর্ধশতরান পূর্ণ করে ৫৭ রানে আউট হন বিলিংস। ১২টি বাউন্ডারি এবং ২টি ওভার বাউন্ডারি দিয়ে সাজানো বেয়ারস্টোর ইনিংস শেষ হয় ১১২ রানে। শেষদিকে ক্রিস ওকসের ৩৯ বলে অপরাজিত ৫৭ রানের ঝোড়ো ইনিংস তিনশো রানের গন্ডি পার করে দেয় ইংল্যান্ডের। টম কারেন করেন ১৯ রান। আদিল রশিদ অপরাজিত থাকেন ১১ রানে।

নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ৩০২ রান তলে ইংল্যান্ড। জবাবে রান তাড়া করতে নেমে আরও বড়সড় ব্যাটিং বিপর্যয়ের সম্মুখীন হয় অস্ট্রেলিয়া। ৭৩ রানের মধ্যে ফিরে যান প্রথম সারির ৫জন ব্যাটসম্যান। অস্ট্রেলিয়ার হার যখন সময়ের অপেক্ষা তখন ষষ্ঠ উইকেটে দুরন্ত প্রত্যাবর্তন অ্যালেক্স ক্যারি-গ্লেন ম্যাক্সওয়েল জুটির। জুটিতে রেকর্ড ২১২ রান যোগ করে কার্যত হারা ম্যাচকে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়ে আউট হন ‘ম্যাড’ ম্যাক্স। ৯০ বলে ১০৮ রানের (৪টি চারx৭টি ছয়) দুরন্ত ইনিংস খেলে ম্যাক্সওয়েল যখন আউট হন তখন অস্ট্রেলিয়ার প্রয়োজন ১৫ বলে ১৮ রান।

৪৯ ওভারের মাথায় দলীয় ২৯৩ রানে সাজঘরে ফেরেন অ্যালেক্স ক্যারিও। ১১৪ বলে ক্যারির ১০৬ রানের ইনিংস সাজানো ছিল ৭টি চার এবং ২টি ছয়ে। তবে ম্যাচ জয়ের দুই নায়ক আউট হলেও থেমে থাকেনি অস্ট্রেলিয়ার জয়। ৩ বলে ১১ রানে অপরাজিত থেকে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন মিচেল স্টার্ক। ৪ রানে অপরাজিত থাকেন কামিন্স। ৭ উইকেট হারিয়ে দু’বল বাকি থাকতেই লক্ষ্যমাত্রা ছুঁয়ে ফেলে অজিরা, একইসঙ্গে কব্জা করে সিরিজে। ম্যাচের সেরা গ্লেন ম্যাক্সওয়েল।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।