ভোপাল: হয় ৭৫ লক্ষ টাকা দিন নাহলে আমাকে আমার কিডনি বেচে দেওয়ার অনুমতি দিন, ভোটে লড়তে নির্বাচন কমিশনকে এমনই চিঠি দিয়েছেন বালাঘাটের প্রার্থী কিশোর সামরিত৷

সমাজবাদী পার্টির প্রাক্তন বিধায়ক কিশোর সামরিত নির্বাচনের লড়ার জন্য কমিশনকে জানান, ভোটে খরচের জন্য সর্বোচ্চ ৭৫ লক্ষ টাকা বেঁধে দেওয়া হয়েছে৷ কিন্তু এত টাকা আমার কাছে নেই ভোটে লড়ার জন্য৷ তাই আমি নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন জানাচ্ছি, আমাকে যেন ৭৫ লক্ষ টাকা দেওয়া হয় নাহলে ব্যাংক থেকে লোন দেওয়া হয়৷ আর তা নাহেল আমার একটি কিডনি বিক্রি করার অনুমতি দেওয়া হোক৷

পড়ুন: প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর ছেলের মৃত্যুর কারণকে ঘিরে বাড়ছে রহস্য

সোমবার সংবাদ সংস্থা এএনআই-এর সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে তিনি জানান, তিনি নির্বাচন কমিশনকে চিঠি লিখে জানিয়েছেন, ভোটের প্রচারের জন্য যে পরিমাণ অর্থ ব্যয় হবে তা তাঁর কাছে নেই৷ উল্লেখ্য, প্রচারে আর মাত্র ১৫ দিন বাকি রয়েছে৷ এত কম সময়ের মধ্যে ওই পরিমাণ অর্থ তিনি জোগাড় করতে পারবেন না৷ তাঁর দাবি, তাঁর বিরোধী প্রার্থীরা সকলেই দুর্নীতিগ্রস্ত, তারা সকলেই স্থানীয়দের থেকে টাকা শোষণ করেছে৷

পড়ুন: অনুব্রতর পাড়ায় যাচ্ছেন নরেন্দ্র মোদী

বালাঘাটের লানজি লোকসভা কেন্দ্র তেকে সমাজবাদী পার্টির প্রার্থী হিসেবে তিনি দাঁড়িয়েছেন৷ মধ্যপ্রদেশে ২৯ এপ্রিল, ৬ মে, ১২ মে, এবং ১৯ মে এই চার দফায় ভোট গ্রহণ পর্ব চলবে৷ এই নির্বাচনের ফলাফল ২৩ মে প্রকাশিত হবে৷