পুরুলিয়াঃ  তরুণীর স্নানের দৃশ্য ক্যামেরা বন্দি করে তা সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল করে দেওয়ার অভিযোগ। অভিযুক্ত দুই যুবক। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে পুরুলিয়াতে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। ইতিমধ্যে ঘটনায় মূল অভিযুক্ত এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত আরও এক যুবকের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত আরও এক যুবক এলাকা ছাড়া। তবে খুব দ্রুত অভিযুক্ত ওই যুবক ধরা পড়বে বলে পুলিশের তরফে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।

জানা গিয়েছে তরুণী পুরুলিয়ার একটি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। অভিযুক্ত দুই যুবক এলাকারই প্রতিবেশী। দুই যুবকের নাম শশধর মাহাত এবং বিশ্বনাথ মাহাত বলে পুলিশের তরফে জানা গিয়েছে। গোপনে ওই দুই যুবক তরুণীর বাথরুমে একটি ক্যামেরা লাগিয়ে আসে। আর ওই তরুণী স্নানে যাওয়ার পর পুরো স্নানের দৃশ্য ক্যামেরা বন্দি করে। এরপর তা সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেয়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ভিডিও পোস্ট হতেই, মুহূর্তে তা ভাইরাল হয়ে যায়। বিষয়টি কিছুই জানতেন না ওই তরুণী। কিছুদিন পর বিষয়টি নজরে আসে ওই তরুণীর। এরপরেই স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের দ্বারস্থ হন তিনি। দেখা করে পুলিশ সুপারের সঙ্গেও। তারপরই অভিযুক্ত দুই যুবকের বিরুদ্ধে থানায় নিগ্রহের অভিযোগ দায়ের করেন ওই তরুণী। অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত বিশ্বনাথ মাহাতকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। কিন্তু ঘটনার পর থেকে এলাকা ছাড়া আরও এক অভিযুক্ত শশধর। অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। ধৃতের বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ।