কলকাতা: ২১ মার্চের আগে পর্যন্তও গোল্ডকোস্ট কমলওয়েলথ গেমসে ভারতের টেবল টেনিস স্কোয়াডের প্রধান সদস্য ছিলেন সৌমজিৎ ঘোষ৷কিন্তু দু’বারের অলিম্পিয়ান বাংলার এই টিটি খেলোয়াড়কে ছাড়াই গোল্ডকোস্টের জন্য উড়ে গেলেন ভারতের টেবল টেনিস দল৷

আরও পড়ুন: ‘কমনওয়েলথের আগে সৌম্যজিতকে ফাঁসানো চেষ্টা’

সম্প্রতি এক নাবালিকা বাংলার টিটি তারকার বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও সহবাসের পর প্রতিশ্রুতি ভঙ্গের অভিযোগ এনেছেন৷ তাই সৌমজিৎকে ছাড়াই শুক্রবার ৯ সদস্যের টেবল টেনিস দল গোল্ড কোস্ট কমনওয়েলথ গেমসে ভাগ নেওয়ার জন্য রওনা দিয়েছে৷দলটির নেতৃত্বে রয়েছেন তিনবারের সোনা জয়ী টিটি খেলোয়াড় শরথ কমল৷ দলের তারকা প্লেয়ারকে ছাড়াই গোল্ডকোস্টে ভাল ফল করা নিয়ে আশাবাদী দলের কোচ জানান, ‘ খেলোয়াড়রা ভালো ফর্মে রয়েছেন৷ ভালো করার ব্যাপারে ওরা আত্মবিশ্বাসী৷ কমপক্ষে চারটে পদক আসবে দেশে৷’

গত ২১ মার্চ বারাসত থানায় স্থানীয় এক তরুণী সৌম্যজিতের বিরুদ্ধে প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস করার পর বিয়ে করতে না-চাওয়ার অভিযোগ দায়ের করেন৷শুধু অলিম্পিয়ান টিটি তারকার বিরুদ্ধেই নয়, তাঁর পরিবারের চারজন সদস্যের বিরুদ্ধেও নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন ওই তরুণী৷

আরও পড়ুন: অন্তঃসত্ত্বা নাবালিকা প্রণয়ীর গর্ভপাত করিয়েছিলেন সৌম্যজিৎ

দীর্ঘদিন তাঁর সঙ্গে প্রণয়ের সম্পর্ক ছিল বলে দাবি জানিয়ে ওই তরুণীর বক্তব্য, সৌম্যজিতের সঙ্গে তাঁর বাগদান হয়ে গিয়েছিল৷ এমন কী, নাবালিকা অবস্থাতেই তিনি একবার অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছিলেন৷তখন সৌম্যজিৎ ও তাঁর পরিবারের লোকজন তরুণীর গর্ভপাত করায়৷তরুণীর বাবার দাবি, ‘২০১৬ শিলিগুড়ির গাজলডোবার এক মন্দিরে দুই পরিবারের উপস্থিতিতে সৌম্যজিৎ ও ওই তরুণীর বাগদান হয়৷বিয়েও হয়ে যেত এতদিনে৷তবে মেয়ে নাবালিকা হওয়ায় তা সম্ভব হয়নি৷’

আরও পড়ুন: ধর্ষণের অভিযোগ বাংলার অর্জুন খেলোয়াড়ের বিরুদ্ধে

যদিও দু’বারের অলিম্পিয়ান টেবিল টেনিস তারকা সৌম্যজিৎ ঘোষের বিরুদ্ধে ওঠা ধর্ষণের অভিযোগ অস্বীকার করে সৌমজিতের বাবা হরিশঙ্কর ঘোষ জানিয়েছিলেন, সামনে কমনওয়েলথ গেমস, তাঁর ঠিক আগে ছেলের মনোসংযোগ নষ্ট করার জন্যই এই চক্রান্ত করা হয়েছে৷পুরো বিষয়টি এখন কোর্টের অধীনে রয়েছে৷