মেষ: প্রতিকূল অবস্থার মধ্যেও ভালো কিছু হবে। পরিকল্পনা বাস্তবায়নে আপনজনেরা সাহায্য করবে। ব্যবসায়ীরা এই দিনটি ভালো সুযোগে কাজে লাগাতে পারেন। ঝুঁকিপূর্ণ কাজ থেকে নিজেকে দূরে রাখুন।

বৃষ: সামাজিক কাজের মাধ্যমে যশ ও পরিচয় বাড়বে আপনার। বাড়িতে অতিথি যোগের সম্ভাবনা। প্রিয়জনের শারীরিক কথা ভেবে দিনটি দুশ্চিন্তায় কাটাবেন। ব্যাবসায়িক কাজে অগ্রগতি হবে। গুরুদায়িত্ব গ্রহণে অনীহা আসতে পারে। মন ভালো রাখুন এই দিন।

মিথুন: পুরনো কোনো দীর্ঘ সমস্যা সমাধানে অন্যের সহযোগিতা পাবেন। সঙ্গীর সোজা জটিল সম্পর্কের কিছুটা মীমাংসা হবে। কিছু অর্থ হাতে এলেও আর্থিক চাপে তা ব্যয় হতে পারে। গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে প্রতিশ্রুতি দেওয়া ঠিক হবে না।

কর্কট: কর্মস্থলে কেনো জটিলতা থাকলে দূর হতে পারে। ধার্মিক অনুষ্ঠানে কোনো প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তির সান্নিধ্য পাবেন। নতুন অভিজ্ঞতা কাজে লাগতে পারে। স্বাস্থ্যের প্রতি নজর দিন।

সিংহ: উদ্বেগের মধ্যে কোনো খুশির খবর পেতে পারেন। পেশাগতভাবে এই দিনটি ফলপ্রসূ হবে। নতুন কোনো বিষয় আলোচনায় আসবে। স্ত্রীর সঙ্গে বিতর্ক এড়িয়ে চলুন।

আরো পোস্ট- রোজ সকালে ত্রিফলার জল, কী লাভ পাবেন

কন্যা: সন্তানের শিক্ষা নিয়ে কোনো সুসংবাদ পেতে পারেন সকালেই। আটকে থাকা কোনো বহুদিনের কাজের ক্ষেত্রে অগ্রগতি আসবে। পারিবারিক কারণে যে মানসিক চাপ চলছিল তা কিছুটা কমবে। বুদ্ধিবলে লাভজনক পরিবর্তন আনতে পারবেন।

তুলা: আর্থিক বিনিয়োগ করার ভালো। আজ ভালো কোনো সুযোগ আসতে পারে। ব্যবসায় ভালো সুযোগ আসবে। কাজে চাপ বাড়বে।

বৃশ্চিক: কর্মক্ষেত্রে সুনাম বজায় থাকবে। ব্যবসাক্ষেত্রে আর্থিক উপার্জন বেড়ে যাবে। বাড়ির বয়স্কদের শরীরের যত্ন নেবেন।

ধনু: কোনো কাজে সহকর্মীদের প্রশংসা পাবেন। মানসিক শক্তি বাড়বে। ব্যবসায় কোনো ভালো সুযোগ আসতে পারে। কোনো রোগ থেকে সাবধানে থাকুন।

মকর: কাজে মন বসবে না। দৈহিক দিক থেকে সাময়িক অস্বস্তিবোধ করতে পারেন। ব্যবসায় পুরনো জট খুলবে।

কুম্ভ: মানসিক চাপ সত্ত্বেও দিন আনন্দে কাটবে। ব্যবসায় কিছু কঠিন পরিবর্তন আসবে। শিক্ষার্থীদের একাগ্রতার অভাব দেখা দেবে।

মীন: বিদেশ যাত্রার কোনো সংবাদে আশাবাদী হবেন। বাড়িতে বিয়ের সংবাদ আসতে পারে। দীর্ঘদিন যে পারিবারিক সমস্যা চলছিল সেই সমস্যা সমাধানের পথ পাবেন। পরিচিতজনের সমস্যায় সাহায্য করলে ভালো ফল পাবেন আপনিও।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.