বার্লিন: করোনা আতঙ্কে নিস্তার পায়নি জার্মানিও। আতঙ্কে ঠকঠক করে কাঁপছে ইউরোপের এই দেশ। ইতিমধ্যে জার্মানিতে আক্রান্তের সংখ্যা পেরিয়ে গেছে ১ লক্ষ ২৭ হাজার। মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩০২২ এ।

জার্মানিতে সুখকর বিষয় হল তাঁদের দেশে ১ লক্ষের বেশি মানুষ আক্রান্ত যেমন হয়েছেন, অন্যদিকে সুস্থ হয়েছেন ৫৩ হাজারের কাছাকাছি মানুষ। যদি আক্রান্ত হওয়ার পর রোগীরা চিকিৎসা ব্যবস্থায় সাড়া না দিত, তবে ভয়ঙ্কর অবস্থা হত জার্মানিরও।

রবার্ট কোচ ইন্সটিটিউট জানাচ্ছে, শেষ ২৪ ঘন্টায় জার্মানির দেশে আক্রান্ত হয়েছেন ২৫৩৭ জন। রবিবার এই সংখ্যাটাই ছিল ২ হাজার ৮২১ জন। সব মিলিয়ে শেষ ৪৮ ঘন্টায় ৫ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন।

বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় সবেচেয়ে ক্ষতি হয়েছে আমেরিকার। জন হপকিন্স ইউনিভার্সিটির তথ্য অনুসারে আমেরিকায় ইতিমধ্যে ৫ লক্ষ ৫৪ হাজার মানুষ এই মারণ ভাইরাসের কবলে পড়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ২২ হাজার ২১ জনের।

মৃতের বিচারে স্পেন ও ইতালিকেও পেছনে ফেলে দিয়েছে আমেরিকা। এর আগে স্পেন, ইতালি ও ফ্রান্সেই এই রোগের প্রকোপ ছিল ভয়াবহ, এখন সেই জায়গার দখল নিয়েছে আমেরিকা।

অন্যদিকে এখন পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী, মার্কিন মুলুকে করোনার জেরে কমপক্ষে ৪০ জন প্রবাসী ভারতীয়র মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন ১৫০০ জন মানুষ। যে ৪০ প্রবাসী ভারতীয়রা মার্কিন মুলুকে আক্রান্ত হয়েছেন তাঁদের মধ্যে ১৭ জন কেরল, ১০ জন গুজরাত, ৪ জন পঞ্জাব, ২ জন অন্ধ্রপ্রদেশ এবং ১ জন ওড়িশার বাসিন্দা। আক্রান্তদের মধ্যে বেশি অংশই প্রাপ্ত বয়স্ক বলে জানা যাচ্ছে।

তবে ভারতেও ধীরে ধীরে প্রভাব দেখাতে শুরু করেছে করোনা। ভারতের করোনায় মৃত্যের সংখ্যা ৩০০ গণ্ডি টপকে গিয়েছে৷ গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৫ জনের মৃত্যুর খবর জানানো হয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে৷ গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ৭৯৬ জন৷

স্বাস্থ্য মন্ত্রক দেওয়া তথ্য অনুযায়ী দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯,১৫২৷ এর মধ্যে এখনও ৭,৯৮৭ জনের শরীরে এই মারণ ভাইরাস রয়েছে৷ আর ৮৫৬ জন সুস্থ হয়েছে৷ তবে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩০৮ জন৷

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প