পুণে: আহত কেশব মহারাজের পরিবর্তে রাঁচি টেস্টের দক্ষিণ আফ্রিকার স্কোয়াডে ঢুকে পড়লেন জর্জ লিন্ডে। পুণে টেস্ট চলাকালীন কাঁধে চোট পান কেশব মহারাজ। চোট সারিয়ে মাঠে ফিরতে অন্তত ২-৩ সপ্তাহ সময় লাগবে বাঁ-হাতি স্পিনারের। সুতরাং চলতি টেস্ট সিরিজে তাঁকে আর পাওয়া যাবে না।

মহারাজ ছিটকে যাওয়ায় তাঁর পরিবর্তে প্রোটিয়া নির্বাচকরা দলে ঢুকিয়ে দেন আর এক বাঁহাতি স্পিনার জর্জ লিন্ডেকে। শনিবার থেকে শুরু হতে যাওয়া রাঁচি টেস্টের প্রথম একাদশে মহারাজের পরিবর্তে দেখা যেতে পারে কোবরার এই স্পিনারকে।

দক্ষিণ আফ্রিকা ০-২ ব্যবধানে ইতিমধ্যেই টেস্ট সিরিজ হেরে বসলেও মহারাজের ছিটকে যাওয়া তাদের কাছে বড় ধাক্কা সন্দেহ নেই। তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ থেকে এখনও আইসিসি ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ৪০ পয়েন্ট করার সুযোগ রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার সামনে। শুধু বল হাতেই নয়, এপর্যন্ত সিরিজে প্রোটিয়াদের হয়ে ব্যাট হাতেও কার্যকরী ভূমিকা নিয়েছেন মহারাজ।

৬ উইকেট নিয়ে কেশব মহারাজই চলতি টেস্ট সিরিজে দক্ষিণ আফ্রিকার সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রহকারী। যদিও তাঁর বোলিং গড় আহামরি কিছু নয়। এপর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে সব থেকে বেশি ওভার বল করেছেন তিনি।উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, দক্ষিণ আফ্রিকার যেসব ক্রিকেটাররা ব্যাট হাতে প্রতিরোধ গড়ার লক্ষণ নিয়ে দেখিয়েছেন, তাঁদের মধ্যে অন্যতম হলেন মহারাজ। পুণে টেস্টের প্রথম ইনিংসে কেরিয়ারের সর্বোচ্চ ৭২ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। ভার্নন ফিলেন্ডারের সঙ্গে ১০৯ রানের অনবদ্য পার্টনারশিপ গড়েন কেশব।

পুণেতে ভারতীয় ইনিংসের ৫০তম ওভারে বল করার সময় কাঁধে চোট পান কেশব। তৎক্ষণাৎ যন্ত্রণায় কাতরাতে দেখা যায় তাঁকে। প্রাথমিক শুশ্রুষার পর ওভার পূরণ করল তার পরেই মাঠ ছাড়েন তিনি। চোট নিয়ে ব্যাট করলেও রাঁচি টেস্টের আগে তাঁর সুস্থ হয়ে ওঠার সম্ভাবনা নেই দেখেই পরিবর্ত হিসেবে লিন্ডেকে ডেকে নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা টিম ম্যানেজমেন্ট।

দক্ষিণ আফ্রিকার স্কোয়াডে আর দু’জন স্পিনার রয়েছেন। মুথুস্বামি ও ডেন পিয়েডট প্রথম টেস্টে মাঠে নামলেও প্রভাবশালী বোলিং করতে পারেননি। পিয়েডট পুণে টেস্টের প্রথম একাদশ থেকে বাদ পড়েন। রাঁচিতে লিন্ডের টেস্ট অভিষেক না হলে দক্ষিণ আফ্রিকা পুনরায় আস্থা রাখতে পারে পিয়েডটের উপর।