নয়াদিল্লি:  দাম কমল রান্নার গ্যাসের। ভর্তুকিহীন গ্যাসের দাম এক ধাক্কায় কমল অনেকটাই। আজ ১মার্চ থেকে নয়া দাম কার্যকর হবে। হিসাব যা বলছে তাতে এক ধাক্কায় ৫০ টাকা কমতে চলেছে রান্নার গ্যাসের দাম।

গত কয়েকদফায় আকাশ ছুঁয়েছে রান্নার গ্যাসের দাম। প্রায় ছয়বার দাম বৃদ্ধি হয়। এক ধাক্কায় প্রায় ৫০ শতাংশ দাম বাড়ে রান্নার গ্যাসের। যার ফলে মধ্যভিত্তের হেঁসেলে আগুন ধরে যায়। যদিও অবশেষে স্বস্তির খবর। আজ ১ মার্চ থেকে দিল্লি ও মুম্বইয়ের সিলিন্ডার প্রতি ভর্তুকিহীন গ্যাসের দাম ৫৩ টাকা করে কমছে বলেই জানিয়েছে ইন্ডিয়ান ওয়েল কর্পরেশন।

নয়া এই দাম অনুযায়ী দিল্লিতে রান্নার গ্যাসের দাম পড়বে (অবশ্যই ভর্তুকিহীন) ৮০৫.৫। এবং মুম্বইতের এলপিজি সিলিন্ডারের দাম পড়বে ৭৭৬.৫ টাকা। আগে এই দাম ছিল যথাক্রমে ৮৫৮.৫ টাকা ও ৮২৯.৫ টাকা প্রতি সিলিন্ডার। ইন্ডিয়ান অয়েল থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুসারে, ১ মার্চ থেকে, ১৯ কিলোগ্রাম সিলিন্ডারের দাম দিল্লিতে প্রতি ইউনিট ১,৩৮১.৫০ এবং মুম্বইতে ১,৩৩১ টাকা হয়েছে। এই দাম আগে ছিল যথাক্রমে ১,৪৬৬ এবং ১,৫৪০.৫০ টাকা। অন্যদিকে, কলকাতায় আগে গ্যাস কিনতে হত ৮৯৬ টাকায়। এবার দাম কমে কিনতে হবে ৮৩৯ টাকা ৫ পয়সায়।

প্রসঙ্গত, গত কয়েকদিন আগেই রান্নার গ্যাসের দাম নিয়ে আশার কথা জানিয়ে ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান। মার্চমাস থেকে দাম কমার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। কেন্দ্রীয়মন্ত্রী বলেন, শীতকালে গ্যাসের ব্যবহার বৃদ্ধি পেয়েছিল, তাই দাম বেড়ে গিয়েছিল। আগামী মাসেই তাই স্বাভাবিকভাবেই দাম কমে যাবে বলে জানিয়েছেন তিনি।শুধু তাই নয়, বিশ্ববাজারে চাহিদা কমার ফলেও দাম কমবে বলে আশা করেছিলেন ধর্মেন্দ্র প্রধান। সেই মতো এক ধাক্কায় অনেকটাই কমল গ্যাসের দাম।

গত ১২ ফেব্রুয়ারি একধাক্কায় ভর্তুকিবিহীন সিলিন্ডারের দাম ১৪৯ টাকা করে বাড়ে। কলকাতায় ভর্তুকিহীন সিলিন্ডারের বর্ধিত দাম হল বর্তমানে ৮৯৬ টাকা।

ইন্ডিয়ান ওয়েল-এর ওয়েবসাইট থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, ডিসেম্বরের শুরুতেই এক লাফে দাম বেড়েছিল ভর্তুকিবিহীন সিলিন্ডারের। ভর্তুকিযুক্ত ১৪.২ কেজি সিলিন্ডারের দাম দিল্লিতে বর্তমানে ৮৫৮ টাকা। ৭১৪ টাকা থেকে ১৪৪.৫০ টাকা বেড়েছে ভর্তুকিযুক্ত সিলিন্ডারের দাম।

আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে গ্যাসের দাম নির্ধারণ করে রাষ্ট্রায়ত্ত তেল সংস্থাগুলো। প্রতি মাসেই গ্যাসের দাম নির্ধারণ করা হয়। যার ফলে ভর্তুকির পরিমাণেও বদল ঘটে। কেন্দ্রীয় সরকার বছরে ১৪.২ কেজি ওজনের বারোটি রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডারে ভর্তুকি দিয়ে তাকে। তার বেশি সিলিন্ডারের প্রয়োজন হলে আর কোনও ভর্তুকি গ্রাহকেরা পান না।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প