স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: ছট পুজোর আগে উত্তর ২৪ পরগনার বারাকপুর গান্ধীঘাট এবং টিটাগড় গ্লাসকল গঙ্গার ঘাট পরিদর্শন করলেন টিটাগড় পুরসভার তৃণমূল কাউন্সিলর মনিশ শুক্লা ও স্থানীয় পুরকর্মীরা। পুণ্যার্থীদের যাতে কোনও সমস্যায় পড়তে না হয় তারজন্য যথাযথ ব্যবস্থা করা হবে আশ্বাস দিয়েছেন তিনি৷

মঙ্গলবার ছটপুজো উপলক্ষ্যে শহরের প্রায় সমস্ত গঙ্গার ঘাটে প্রচুর পুণ্যার্থীরা জড়ো হবেন। সেজন্য প্রতি ঘাটে আলোর ব্যবস্থা করা ছাড়াও গঙ্গা থেকে ফুল এবং পুজোর বিভিন্ন উপাচার তোলার জন্য থাকবে পুরসভার জঞ্জাল দফতরের কর্মীরা। সব জায়গাতেই থাকছে পুলিশ৷

টিটাগড়ের একটা বড় অংশ হিন্দিভাষী এলাকা। এই অঞ্চলে জুটমিল শ্রমিকদেরই বসবাস বেশী। টিটাগড়ের জুটমিল কোয়ার্টারের শ্রমিকদের একটা বড় অংশ প্রত্যেক বছরই নিয়মনিষ্ঠা মেনে ছট উৎসব পালন করেন। টিটাগড়ের গ্লাসকল গঙ্গার ঘাট এবং বারাকপুর গান্ধীঘাটে ছট উৎসব পালন করতে আসেন অসংখ্য পুণ্যার্থী।

রবিবার ঘাট পরিদর্শনে গিয়ে স্থানীয় কাউন্সিলর জানিয়েছেন, ওই গঙ্গার ঘাটে এসে পুণ্যার্থীদের যাতে কোনও সমস্যায় পড়তে না হয় তারজন্য যথাযথ ব্যবস্থা করা হবে ওই ঘাটগুলিতে। এছাড়া, শুধু পুরকর্মীরাই নয় পুণ্যার্থীদের সাহায্যের জন্য গঙ্গার ঘাটে উপস্থিত থাকবেন স্থানীয় তৃণমূল কর্মীরাও।