নয়াদিল্লি: সাফল্যের বিচারে মহেন্দ্র সিং ধোনি হলেন ভারতের সর্বাকালের সেরা অধিনায়ক৷ কিন্তু সেই সাফল্য এসেছে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের কঠোর পরিশ্রমের ফলে৷ এমনটাই মনে করেন টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন ওপেনার গৌতম গম্ভীর৷

ধোনির নেতৃত্বে তিনটি আইসিসি টুর্নামেন্ট জিতেছে ভারত৷ ২০০৭ প্রথম টি-২০ বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন এবং ২০১১ ওয়ান ডে বিশ্বকাপ ছাড়াও ২০১৩ সালে দেশকে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি দিয়েছেন ক্যাপ্টেন মাহি৷ এছাড়াও টেস্টে এক নম্বরে উঠেছিল ধোনির ভারত৷ এই সাফল্য আরও কোনও ভারতীয় ক্যাপ্টেনের নেই৷ কিন্তু ধোনির দলের সাফল্যের জন্য সৌরভের তৈরি দলকেই কৃতিত্ব দিতে চান গম্ভীর৷

স্টার স্পোর্টস শো ক্রিকেট কানেকটে ২০১১ বিশ্বকাপ জয়ী ভারতীয় ওপেনার বলেন, ‘ধোনির এক খুব লাকি ক্যাপ্টেন, কারণ ও তিন ফর্ম্যাটেই এক দারুণ টিম পেয়েছিল৷’ প্রাক্তন ভারতীয় ওপেনার আরও বলেন, ‘ক্যাপ্টেন হিসেবে ধোনির ২০১১ বিশ্বকাপ জয় অত্যন্ত সহজ ছিল৷ কারণ দলে ছিল সচিন তেন্ডুলকর, বীরেন্দ্র সেহওয়াগ, আমি, যুবরাজ সিং, ইউসুফ পাঠান, বিরাট কোহলির মতো খেলোয়াড়৷ সুতরাং ওর হাতে ছিল সেরা টিম৷’

টেস্টেও ক্যাপ্টেন ধোনির সাফল্যের কারণ ব্যাখ্যা করেন গম্ভীর৷ তাঁর মতে, টেস্টে ধোনির দলের সাফল্যের অন্যতম কারণ হল জাহির খানের মতো বোলার৷ যার কৃতিত্ব সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের৷ আমার মতে, জাহির হল ভারতের সেরা বিশ্বমানের বোলার৷

ধোনির সঙ্গে বেশ কিছুদিন রুম শেয়ার করেছেন গম্ভীর৷ ভারত অধিনায়ককে খুব কাছ থেকে দেখেছেন তিনি৷ প্রাক্তন ভারতীয় ওপেনার বলেন, ‘আমরা এক মাসের বেশি সময় রুমমেট ছিলাম৷ আমরা ওরে চুল নিয়ে কথা বলতাম৷ কারণ তখন ওর লম্বা চুল ছিল৷ আমি ওকে জিজ্ঞে করতাম ও কীভাবে এই লম্বা চুলের যত্ন করে৷ আমার মনে যাচ্ছে, আমাদের রুমটা এতো ছোট ছিল আমাদের মেঝেতে ঘুমোতে হয়েছিল৷ রুম থেকে খাট বের করে দিয়ে মেঝেতে আমরা রাতে শুয়েছিলাম৷’

২০১১ বিশ্বকাপে ধোনির অন্যতম হাতিয়ার ছিলেন গম্ভীর৷ ফাইনালে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে গম্ভীরের ৯৭ রানের ইনিংস ধোনির বিশ্বকাপ জয় সহজ করেছিল৷ ব্যাট হাতে নিজেও রান পেয়েছিলেন ধোনি৷ চার নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ৯১ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছিলেন মাহি৷ ছক্কা হাঁকিয়ে ২৮ বছর পর ভারতকে দ্বিতীয় ওয়ান ডে বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ এনে দিয়েছিলেন ধোনি৷ কপিল দেবের পর ভারতকে বিশ্বকাপ এনে দেন রাঁচির এই যুবক৷

প্রশ্ন অনেক: তৃতীয় পর্ব