নয়াদিল্লি : মঙ্গলবার কিছুটা স্বস্তি মিলল ৷ এদিন তেল সংস্থাগুলি পেট্রোল ও ডিজেলের দামে কোনও পরিবর্তন করেননি ৷ এর আগে সোমবার পেট্রোলের দাম ৫ পয়সা প্রতি লিটার ও ডিজেলের দাম ১৩ পয়সা প্রতি লিটারে বেড়েছিল ৷ কলকাতায় পেট্রোলের দাম ৮২.১০ টাকাই, ডিজেলের দাম রয়েছে ৭৫.৬৪ টাকা। একই দাম ছিল সোমবারই। মঙ্গলবার দিল্লিতে এক লিটার পেট্রোলের দাম ৮০.৪৩ টাকা ৷ ডিজেলের দাম ৮০.৫৩ টাকা প্রতি লিটারে।

নয়ডায় পেট্রোল ৮১.০৮ টাকা, ডিজেল ৭২.৫৯ টাকা, গুরুগ্রামে পেট্রোল ৮০.৯৮ টাকা, ডিজেল ৭৭.৪০ টাকা, পটনায় পেট্রোল ৮৩.৩১ টাকা, ডিজেল ৭৭.৪০ টাকা ভোপালে পেট্রোল ৮৮.০৮ টাকা, ডিজেল ৭৯.৯৫ টাকা জয়পুরে পেট্রোল ৮৭.৫৭ টাকা, ডিজেল ৮১.৩২ টাকা চন্ডীগড়ে পেট্রোল ৭৭.৪১ টাকা, ডিজেল ৭১.৯৮ টাকা মুম্বইতে পেট্রোল ৮৭.১৯ টাকা, ডিজেল ৭৮.৮৩ টাকা চেন্নাইয়ে পেট্রোল ৮৩.৬৩ টাকা, ডিজেল ৭৭.৭২ টাকা।

গত কয়েকদিন ধরে লাগাতার বেড়েই চলেছিল পেট্রোল ও ডিজেলের দাম ৷ লকডাউনের জেরে টানা ৮২ দিন তেলের দাম এক জায়গায় দাঁড়িয়ে থাকার পর আচমকা তা হ হু করে বেড়েই চলেছিল ৷ গোটা দেশে ৭ জুন থেকে ধাপে ধাপে অনেকটাই বেড়েছে তেলের দাম ৷ একদিকে লকডাউন অন্যদিকে মূল্যবৃদ্ধি ৷ সব মিলিয়ে নাজেহাল এক পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যেতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে ৷ তবে তারই মধ্যে একটু স্বস্তি দিচ্ছে এদিনের পেট্রোল , ডিজেলের দাম।

পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান জানিয়েছেন, দেশ ও গোটা বিশ্ব এখন একটি সঙ্কটজনক পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে ৷ লকডাউনের জেরে এপ্রিল ও মে মাসে পেট্রোল ও ডিজেলের চাহিদা প্রায় ৭০ শতাংশ কমে গিয়েছিল ৷ জুন থেকে লকডাউনে ছাড় দেওয়া শুরু হলে এবং অফিস, কারখানা খুলতে থাকায় আবার তেলের চাহিদা বাড়তে থাকে ৷ তিনি আরও বলেন বাড়িতে বা পরিবারে কোনও সঙ্কট এলে মানুষকে ধৈর্যের সঙ্গে কাজ করতে হয়। তিনি বলেন, যে মুহূর্তে আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম স্থির হয়ে যাবে দেশের তেল সংস্থাগুলির পেট্রোল ও ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির উপর লাগাম টানতে পারবে ৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।