মুম্বই: নেপথ্য কন্ঠশিল্পী হিসেব বলিউড দাপিয়ে বেড়ালেও মহম্মদ আজিজ কিন্তু বাংলার ছেলে৷ এ রাজ্যের অশোকনগরে তাঁর জন্ম৷ মহম্মদ আজিজের ডাক নাম ছিল মুন্না৷ ছোট্টবেলা থেকেই মহম্মদ রফির বড় ভক্ত ছিলেন তিনি৷ ফলে আশির দশকে পাড়ায় পাড়ায় ফ্যাংশনে মুন্নার গলায় রফির গানগুলি শোনার জন্য ভিড় জমত৷

জ্যোতি নামে একটি বাংলা ছবিতে গান গেয়ে আজিজের চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ করেন। তারপরে তিনি একজন প্রযোজকের আত্মীয়ের অনুরোধে ১৯৮৪ সালে মুম্বই আসেন। এরপর অম্বর নামে একটি হিন্দি চলচ্চিত্র প্রথম গানটি গান৷

প্রথম জীবনে আজিজ কলকাতার গালিব বারে গান করতেন৷ সেই সময় সঙ্গীত পরিচালক অনু মালিকের চোখে পড়েন এবং তাঁকে বড় সুযোগ দেন মর্দ ছবিতে যেখানে তাঁর গানে লিপ দিয়েছেন বিগ বি অমিতাভ বচ্চন৷ সেই ছবির মর্দ ট্যাঙ্গেওলি… গান খুবই জনপ্রিয় হয়েছিল৷

প্রথমে লোকে ভেবেছিল গানটি সাব্বির কুমার গেয়েছেন কিন্তু পরে সকলে জানতে পারেন আজিজ গেয়েছেন এবং রাতারাতি তিনি জনপ্রিয় হন৷ এরপরে তিনি মুম্বইতে আরও কাজের সুযোগ পান৷ ফলে কল্যানজি আনন্দজি, লক্ষ্মীকান্ত- প্যায়ারেলাল, রাহুলদেব বর্মণ, বাপি লাহিড়ী, রাজেশ রোশন, রবীন্দ্র জৈন, যতীন-ললিত, অনু মালিক মতো সঙ্গীত পরিচালকের সঙ্গে কাজ করেন৷

বাংলা ও হিন্দির পাশাপাশি তিনি ওড়িয়া ছবিতেও গান গেয়েছেন৷ ওড়িয়াতে মহম্মদ আজিজের ভজনের ভজনের অ্যালবামও বেশ জনপ্রিয়৷ কথিত তাঁর সঙ্গে লক্ষ্মীকান্ত-প্যায়েরেলাল, খুবই ভাল সম্পর্ক ছিল ৷ কিন্তু সেই জুটির ইতি ঘটলে আজিজেরও কেরিয়ারে ভাটা পড়ে৷

অমিতাভ ছাড়াও তাঁর নেপথ্য কন্ঠে ছবিতে লিপ দিয়েছেন মিঠুন চক্রবর্তী, ঋষি কাপুর, গোবিন্দের মতো বলিউড তারকারা৷ আবার লতা মঙ্গেলকার আশা ভোঁসলে অনুরাধা পড়ওয়ালের মতো শিল্পীর সঙ্গে ডুয়েট গেয়েছেন৷