নয়াদিল্লি: ইন্ডিয়ান টেলিকম রেগুলেটরি ট্রাই সাধারণ‌ গ্রাহকদের এসএমএস করার ক্ষেত্রে নয়া সুবিধার ব্যবস্থা করল। এখন দিনে ১০০ বেশি এসএমএস করলে মোবাইল পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থাটি ওই গ্রাহককে অতিরিক্ত প্রতি এসএমএসের জন্য অন্তত ৫০ পয়সা চার্জ করতে পারবে না। করোনা মহামারীর কারণে এমন ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

তবে কিছু ধারা অনুসারে দিনে ১০০ বেশি এসএমএস করলে প্রতি সিমে অতিরিক্ত প্রতিটি এসএমএস এর জন্য অন্তত ৫০ পয়সা নেওয়া হবে যখন বাণিজ্যিক কারণে একসঙ্গে বহু এসএমএস ছাড়া হবে। ট্রাই তার নতুন বিজ্ঞপ্তিতে এইসব কথা জানিয়েছে।

ট্রাই জানিয়েছে, এটা অনুভব করা হয়েছে, মাশুল বিধি যা অ-বাণিজ্যিক ভাবে অনেক এসএমএস ব্যবহারকারীদের স্বার্থ বিঘ্নিত হয়, তাই এটা আর বেশিদিন চলতে দেয়া যায় না বরং সরিয়ে দেওয়া হল। ২০১২ সালে চালু হয়েছিল টেলিকমিউনিকেশন মাসুল নির্দেশিকা বিধি ১৩।

এদিকে আবার ভারতীয় টেলিকম অপারেটর সংস্থাগুলি খুশিতে অবাক হয়েছে২০২৫ অর্থ বর্ষের মধ্যে তাদের আয়ের পরিমাণ দ্বিগুণ হবে বলে। ভারত একটি ‘টারিফ ডিসিপ্লিনারি ফেস’-এ অবতীর্ণ হচ্ছে যার ফলে ভোডাফোন আইডিয়া, এয়ারটেল রিলায়েন্স জিও ভবিষ্যতে ব্যবহারকারীর কাছ থেকে পাওয়া গড় আয় বাড়বে। বর্তমানে ভারতের মোবাইল থেকে আয় এবং জিডিপি অনুপাত ‌০.৭ শতাংশ।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ