নয়াদিল্লি: করোনার জেরে দেশে লকডাউন করতে বাধ্য হয়েছিল মোদী সরকার। হঠাৎ লকডাউনের জেরে বিরাট সমস্যায় পড়েন দেশের মানুষ। বিশেষ করে দরিদ্রদের অবস্থা মারাত্মক খারাপ হয়ে পড়ে।

সেই পরিস্থিতির কথা মাত্থায় রেখেই একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছিল সরকার। এর মধ্যে অন্যতম ছিল উজ্জ্বলা গ্যাসের খাতাধারীদের বিনা পয়সায় সিলিন্ডার দেওয়া। এবার সেই পদক্ষেপ সম্পর্কে আরও বড় সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় সরকার।

প্রধানমন্ত্রী কল্যাণ যোজনায় উজ্জ্বলা উপভোক্তাদের জন্য বাড়ানো হল বিনামূল্যে গ্যাস সিলিন্ডার প্রদানের সময়সীমা। প্রথমে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল, এপ্রিল থেকে পর পর ৩ মাস বিনামূল্যে সিলিন্ডার দেবে সরকার। তবে নতুন সিদ্ধান্তে এই সময় আরও তিন মাস বাড়ানো হল।

আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর অবধি এই সীমা বাড়ানো হয়েছে। কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে, বর্তমানে ৭.৪০ কোটি উজ্জ্বলা গ্রাহক এই বিনামূল্যে সুবিধা পান। সরকারের বর্ধিত এই সিদ্ধান্তের ফলে এই বিরাট সংখ্যক মানুষ আরও উপকার পাবে বলে মনে করা হচ্ছে।

এই স্কিমের আওতায় কেন্দ্রের তরফে উজ্জ্বলা খাতাধারীদের অ্যাকাউন্টে সরাসরি টাকা জমা পড়ে যায়। এরপর সেই টাকা দিয়ে গ্যাস সিলিন্ডার নেন গ্রাহক। অর্থাৎ একপ্রকার বিনামূল্যেই গ্যাস পাচ্ছেন গ্রাহকেরা।

এই প্রকল্পের আওতায় ২০২০ সালের এপ্রিল-জুন মাসে মোট ৯৭,০৯.৮৬ কোটি টাকা গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টে স্থানান্তরিত করা হয়েছিল এবং মোট ১১ কোটিরও বেশি সিলিন্ডার সুবিধাভোগীদের হাতে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.