নয়াদিল্লি: রাজধানী দিল্লি শহরের মহিলাদের জন্য নয়া সুখবর আনল, দিল্লি ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশন এবং দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের নতুন একটি ঘোষণা। দিল্লি ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশনের ঘোষণায় জানা গিয়েছে মঙ্গলবার অর্থাৎ ভাইফোঁটার দিন থেকেই রাজধানীর শহরে মহিলাদের জন্য সম্পূর্ণ বিনামূল্যে বাস পরিষেবা চালু করতে চলেছে দিল্লি সরকার।

সূত্রের খবর, ভাইফোঁটার দিন থেকেই দিল্লির রাস্তায় এই পরিষেবা পাবেন মহিলারা। এক্ষেত্রে কাউকেই কোনও রকম টাকা-পয়সা খরচ করতে হবেনা বলে জানা গিয়েছে। ভাইফোঁটার দিন প্রতিটি ঘরে ঘরে ভাই বোনের সম্পর্ক আরও মজবুত হোক সেই কামনা করে দিল্লির বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মহিলাদের জন্য নতুন এই সুবিধার কথা ঘোষণা করেছেন। মঙ্গলবার থেকে এই পরিষেবা চালু হলে দিল্লির অসংখ্য মহিলা এতে উপকৃত হবেন বলে মনে করছে দিল্লি সরকার।

সরকারি সূত্রে খবর, ফ্রী বাস পরিষেবা নিয়ে সংবাদ মাধ্যমকে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, যাত্রীদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে বিশেষ করে মহিলা যাত্রীদের নিরাপত্তা এবং সুযোগসুবিধার কথা ভেবেই মঙ্গলবার থেকে দিল্লি ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশন এই ফ্রী বাস পরিষেবা চালু করবে। মঙ্গলবার থেকেই এই পরিষেবা চালু হলে দিল্লি ‘বাস মার্শাল’ কোম্পানির তরফে প্রায় তেরো হাজার বাস পথে নামানো হবে বলে জানা গিয়েছে।

গত অগস্ট মাসের ২৯ তারিখ দিল্লি ক্যাবিনেট মহিলাদের জন্য সম্পূর্ণ বিনামূল্যে গনপরিবহনের বিষয়টি মেনে নিয়েছিলেন। সেইমত দিল্লি বিধানসভা এই কর্মসূচি পালনের জন্য পরিপূরক অনুদান হিসাবে সংশ্লিষ্ট পরিবহন সংস্থা গুলির জন্য চারশো উনআশি কোটি টাকা ধার্য করেছিল। শুধু তাই নয়, মহিলাদের বিনামূল্যে বাসের পরিষেবা দেওয়ার জন্য একশো চল্লিশ কোটি টাকা ভুর্তুকি ঘোষণা করা হয়েছিল। যা সংশ্লিষ্ট বাস কোম্পানি গুলিকে দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করা হয়েছিল।

এছাড়াও একই কারনে দেড়শো কোটি টাকা ভুর্তুকি পাবে দিল্লি মেট্রো। এদিকে দিল্লি বিধানসভা এবং মুখ্যমন্ত্রীর মহিলাদের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে এই পদক্ষেপকে অভিনন্দন জানিয়েছেন দিল্লির পরিবহন মন্ত্রী কৈলাশ ঘালট। জানা গিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি যে সমস্ত কোম্পানির বাসগুলি এই পরিষেবা দেবে তাদেরকেও তিনি অভিনন্দন জানিয়েছেন।

সূত্রের খবর, মঙ্গলবার থেকে এই ফ্রী বাস পরিষেবা নিতে হলে একক ভাবে মহিলা যাত্রীদের বাসের কনডাক্টরদের কাছ থেকে গন্তব্যে যাওয়ার জন্য পাস সংগ্রহ করতে হবে। শুধু তাই নয়, যেহেতু এটি সম্পূর্ণ ভাবে একটি সরকারি প্রকল্প তাই এখানে যাত্রীরা মনে করলে এই পরিষেবা গ্রহন করতেও পারে আবার নাও নিতে পারেন। সম্পূর্ণটায় সংশ্লিষ্ট যাত্রীর ইচ্ছাধীন বলে জানা গিয়েছে। কোনও মহিলা যদি মনে করেন তিনি এই সুবিধা নেবেননা সেই ক্ষেত্রে তিনি অন্য বাসেও চড়তে পারেন। ফ্রী বাস চালু হয়েছে বলে এবার থেকে দিল্লির মহিলা যাত্রীদের ওই বাসই ব্যবহার করতে হবে এমন কোনও বাধ্যবাধকতা নেই বলে জানিয়েছে সরকারি মহল।

চলতি বছরের জুন মাসে দিল্লি সরকার রাজধানীর মহিলাদের জন্য বিনামূল্যে মেট্রোতে চড়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন। তার দুমাস বাদেই গত ১৫ অগস্ট স্বাধীনতা দিবসের দিন একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল রাজধানী শহরের মহিলাদের সুরক্ষা এবং নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে ফ্রী বাস পরিষেবা চালু করার কথা ঘোষণা করেছিলেন।

প্রসঙ্গত, ফেব্রুয়ারিতেই শেষ হয়ে যাছে দিল্লি বিধানসভার মেয়াদকাল। তার আগেই আমআদমি পার্টির সরকার দিল্লির নাগরিক এবং ভোটারদের উৎসাহিত করার জন্য বেশ কিছু সুন্দর সুন্দর পদক্ষেপ গ্রহন করার কথা ঘোষণা করেছিলেন। আর তার উপহার স্বরুপ ভাইফোঁটাতেই দিল্লির মহিলারা পাচ্ছেন ফ্রী বাস পরিষেবা।