হাওড়া: হাওড়া জেলার সরকারি বাংলা মাধ্যম স্কুলগুলিতে ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা কমছে, বলছে রিপোর্ট। জেলার প্রায় ৩৩টি স্কুলের ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা শূন্য। এই পরিস্থিতিতে চারটি বাংলা মাধ্যম স্কুল বন্ধ করে দিয়েছে স্কুল শিক্ষা দপ্তর।

এখনও বন্ধের তালিকায় রয়েছে আরও ২৯টি স্কুল।কিছুদিনের মধ্যেই এই স্কুলগুলিকে বন্ধের সিদ্ধান্ত নিতে পারে শিক্ষা দপ্তর। স্কুল বন্ধ আটকাতে জেলার ৯টি বাংলা মাধ্যম স্কুলে বাংলার পাশাপাশি ইংরাজি ভাষাতেও বিভিন্ন বিষয় চালু করা হয়েছে।

শিক্ষা দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, হাওড়া জেলায় সরকারি এবং সরকার পোষিত মোট স্কুলের সংখ্যা মোট ৬৩৪টি। বিভিন্ন কারণে রাজ্যে দীর্ঘদিন ধরে বাংলা মাধ্যম স্কুলগুলিতে ছাত্রছাত্রী সংখ্যা তলানিতে এসে ঠেকেছে। হাওড়াও এই পরিস্থিতি থেকে থেকে মুক্ত নয়। শিক্ষা দপ্তর জানিয়েছে, হাওড়ায় শহর ও গ্রাম মিলিয়ে এরকম প্রায় ৩৩টি বাংলা মাধ্যম স্কুলে ছাত্রছাত্রীর ভর্তির সংখ্যা শূন্য অর্থাৎ ‘জিরো এনরোলমেন্ট’। এই পরিস্থিতিতে স্কুলগুলির শিক্ষদের কোনও কাজ ছিল না। তাঁরা স্কুলে আসতেন এবং সময় হলে ফিরে যেতেন।

শিক্ষা দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, হাওড়ার এখনও পর্যন্ত মোট ৪টি ‘জিরো এনরলমেন্ট’ স্কুলকে বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই স্কুলগুলি হল আর্য বালিকা বিদ্যালয়, শিবপুর শিক্ষালয়, সালকিয়া রত্নাকর হিন্দি জুনিয়র হাই স্কুল এবং শিবপুর হিন্দি বালিকা বিদ্যালয়। এর মধ্যে আর্য বালিকা বিদ্যালয়কে তারাসুন্দরী বালিকা বিদ্যালয়ের সঙ্গে যুক্ত করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বাকি তিনটি স্কুলের শিক্ষকদের যথাক্রমে ডোমজুড়ের সাতালি হাইস্কুল, বি.গার্ডেন জুনিয়র হিন্দি হাইস্কুল, এবং বিনোদিনী হিন্দি মিডিয়াম স্কুলে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

কেন এই পরিস্থিতি? এই প্রসঙ্গে শিক্ষা দপ্তরের জনৈক আধিকারিক জানিয়েছেন, এই সমস্যা মূলত শরাঞ্চলের স্কুলগুলিতে। অভিভাবকরা সবসময় চান তাঁদের সন্তান একই স্কুল থেকে মাধ্যমিক বা উচ্চমাধ্যমিক পর্যন্ত পড়াশোনা করুক। দেখা গেছে ‘জিরো এনরোলমেন্ট’ স্কুলগুলি বেশিরভাগই অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত পড়ানো হয়। এছাড়াও গ্লোবালাইজেশনের যুগে শিক্ষার মাধ্যম হিসেবে ইংরাজি একটি ভাষা। সেই কারণে অভিভাবকদের কাছে বাংলা মাধ্যমে পড়াশোনার গুরুত্ব অনেকটাই কম। এই কারণেই বাংলা মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা ক্রমে কমছে।

কয়েক বছরের মধ্যে বাকি স্কুলগুলিকে ধাপে ধাপে বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। ইংরাজি মাধ্যমে শিক্ষার প্রতি আগ্রহ দেখে ২০১৯ শিক্ষাবর্ষ থেকে হাওড়ার মোট ৯টি বাংলা মাধ্যমের স্কুলে বাংলায় পঠনপাঠনের পাশাপাশি ইংরাজি মাধ্যমেও পঠনপাঠন শুরু হয়েছে। এর মধ্যে দুটি প্রাথমিক স্কুল শিবপুর যমুনাবালা হাই স্কুল এবং সালকিয়া সাবিত্রী গার্লস স্কুল। বাকি ৭টি মাধ্যমিক স্কুল। সেগুলি হল, অক্ষয় শিক্ষায়তন, তারাসুন্দরী বালিকা বিদ্যালয়, বিবেকানন্দ ইনস্টিটিউশন, পালঘাট গার্লস সেকেন্ডারি স্কুল, খামারপাড়া গার্লস স্কুল, বালি শান্তিরাম স্কুল এবং হাওড়া সংঘ আদর্শ বালিকা বিদ্যালয়। এই স্কুলগুলি ইংরাজি মাধ্যম হওয়ায় ভাল সাড়া পাওয়া গিয়েছে বলেও শিক্ষা দপ্তর সূত্রে জানা গেছে।