শ্রীনগর: ভূস্বর্গে ফের জঙ্গি হানার ছক ভেস্তে দিল সেনা। জম্মু কাশ্মীরের বুদগাম থেকে সেনার জালে ধরা পড়ল চার জঙ্গি। উপত্যকায় নাশকতা চালানোর ছক কষেছিল ওই জঙ্গিরা। বদগাম গা ঢাকা দিয়েই নেটওয়ার্ক তৈরির চেষ্টা করছিল ওই জঙ্গিরা।

কোথায়, কীভাবে হামলা চালানো হবে তারই ছক কষচিল জঙ্গিরা। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে হানা দিয়ে ৪ জঙ্গিকে গ্রেফতার করে নিরাপত্তা বাহিনী। ধৃত চার জঙ্গিই আনসারুল গাজওয়াতুল হিন্দ জঙ্গি সংগঠনের সদস্য বলে জানা গিয়েছে।

জম্মু কাশ্মীর পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গোপন সূত্রে পাওয়া খবরের উপর ভিত্তি করে অভিযানে যায় রাষ্ট্রীয় রাইফেলস ও পুলিশ। যৌথ অভিযানে বুদগামে গিয়ে প্রথমে গোটা এলাকা ঘিরে ফেলা হয়। লুকিয়ে থাকা জঙ্গিদের খোঁজে চিরুনি তল্লাশি শুরু হয় এলাকায়। পাল্টা আঘাত হানার আগেই চার জঙ্গিকে গ্রেফতার করা হয়। ধৃতদের কাছে বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্র ও বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়েছে।

বিপুল পরিমাণ এই অস্ত্রশস্ত্র কোথা থেকে জঙ্গিরা পেল, তা জানতে দফায় দফায় জেরা করা হচ্ছে ধৃতদের। এলাকায় আরও কোথাও তাদের সঙ্গীরা লুকিয়ে আছে কি না তাও জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, জেরায় আনসারুল গাজওয়াতুল হিন্দ জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত থাকার কথা স্বীকার করেছে ধৃত চার জঙ্গিই।

উপত্যকায় নাশকতা চালানোই তাদের উদ্দেশ্য ছিল বলেও জানিয়েছে জঙ্গিরা। কাশ্মীরের বিভিন্ন এলাকায় থাকা সঙ্গী-জঙ্গিদের হাতে বিপুল পরিমাণ ওই আগ্নেয়াস্ত্র তুলে দেওয়া ধৃত চারজনের উদ্দেশ্য ছিল বলেও জেরায় পুলিশ জানতে পেরেছে।

এদিকে, ধৃত চার জঙ্গির মধ্যে দু’জনের সঙ্গে পাকিস্তানের যোগ রয়েছে বলেও পুলিশ জানতে পেরেছে। সেই কারণেই তাদের দফায় দফায় জেরা করে গোটা পরিকল্পনা জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। বুদগামে লুকিয়ে থাকতে ওই জঙ্গিদের কেউ সাহায্য করেছিল কি না জেরায় তাও জানার চেষ্টা হচ্ছে।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব