স্টাফ রিপোর্টার, বালুরঘাট: গৃহবধূকে পিটিয়ে খুনের অভিযোগে শ্বশুর, শাশুড়ি ও স্বামী সহ গ্রেফতার চারজনের জামিনের আবেদন নাকচ করল আদালত৷ ঘটনাটি দক্ষিণ দিনাজপুরের কুমারগঞ্জের মোহনাবাজার এলাকার৷

গত মঙ্গলবার সকালে এলাকাবাসী আটকে রেখে পুলিশের হাতে তুলে দেন৷ কুমারগঞ্জ থানার পুলিশ ধৃতদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করেছে। বুধবার তাদের বালুরঘাট আদালতে হাজির করান হয়। মুখ্য বিচার বিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট আদালত তাদের জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেননি।

অভিযোগ কুমারগঞ্জের মোহনাবাজার এলাকার গৃহবধূ অপর্ণা মজুমদারকে সোমবার রাতে মারধর করেন শ্বশুর বাড়ির লোকেরা। মঙ্গলবার সকালে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়৷ সেখানে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযুক্তদের বাড়ি ও দোকানে ভাঙচুর করে লুঠপাট চালান।

পুলিশ মৃতার শাশুড়ি বিভা মজুমদার, শ্বশুর যুধিষ্ঠির মজুমদার, স্বামী পঙ্কজ মজুমদার ও দেওর প্রহ্লাদ মজুমদারের বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজু করে তাদের গ্রেফতার করে। অন্যদিকে অভিযুক্তদের বাড়িতে ভাঙচুর ও লুঠপাটের ঘটনায় জড়িত সাত জনকেও গ্রেফতার করেছে কুমারগঞ্জ থানার পুলিশ।

আদালতের সরকারি সহকারী আইনজীবী জয়ন্ত মজুমদার জানিয়েছে, মুখ্য বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট শুভ্রসোম ঘোষাল কুমারগঞ্জে গৃহবধূকে খুনের ঘটনায় মূল অভিযুক্ত পঙ্কজ মজুমদারকে চার দিনের জন্য পুলিশি হেফাজত রাখার নির্দেশ দিয়েছেন৷ পাশাপাশি শ্বশুর, শাশুড়ি ও দেওরকে ১৪ দিনের হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।