সাও পাওলো: শাপেকোয়েনসের দুর্ঘটনা এখনও কাঁদায় ব্রাজিলীও ফুটবলকে। এর মধ্যে ফের বিমান দুর্ঘটনায় শোকের ছায়া সেলেকাও ফুটবলে।

বিমান বিধ্বস্ত হয়ে লাস পালমাস ক্লাবের প্রেসিডেন্ট-সহ চার ফুটবলার নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনায় মারা গিয়েছেন বিমানের পাইলটও। সোমবার দেশটির লুজিমাঙ্গুয়েস নামক স্থানে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এদিন রাতে ভিলা নোভা ক্লাবের বিরুদ্ধে তাদের খেলার কথা ছিল। দুর্ঘটনার পর ম্যাচটি স্থগিত করা হয়েছে।

লাস পালমাস ব্রাজিলের চতুর্থ বিভাগের ক্লাব। দুর্ঘটনার পর ক্লাবের পক্ষ থেকে এক বার্তায় জানানো হয়েছে, ভিলা নোভার বিরুদ্ধে ম্যাচের জন্য বিমানে করে খেলতে যাচ্ছিলেন তারা। বিমানটি রানওয়ে থেকে উড়ার পরই ভূপতিত হয়।

ঘটনাস্থলেই ক্লাব প্রেসিডেন্ট লুকাস মেইরা, পাইলট ওয়াগনার মাচাদো এবং চার ফুটবলার লুকাস পার্কদেস, গুইলহেরমে নোয়ি, রানুলি ও মার্কাস মোলিনারি মারা যান। ব্রাজিলের শাপেকোয়েনসের বিমান দুর্ঘটনা কিছুদিন আগে চতুর্থ বর্ষ হয়েছে৷ যা এখনও কাঁদায় ব্রাজিলীও ফুটবলকে। এর মধ্যে আবার বিমান দুর্ঘটনা শোকের কালো ছায়া মেনে এল সেলেকাও ফুটবলে।

ব্রাজিলিয়ান কাপের ম্যাচ খেলতে গোইয়ানিয়ায় যাচ্ছিলেন পালমাস ক্লাব সভাপতি ও খেলোয়াড়েরা। বিমানটি ছোট ছিল। কিন্তু সেটি ঠিকমতো ওড়ার আগেই দুর্ঘটনা। টেক-অফের সময়ই বিধ্বস্ত হয়। বিমানের ভেতরে থাকা কেউই বেঁচে ফিরতে পারেননি। পালমাস ক্লাবের তরফে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়, ‘বিমান টেক-অফ করেছিল, এরপর তোকানতিনেসে এভিয়েশন অ্যাসোসিয়েশনের রানওয়ের শেষ প্রান্তে গিয়ে বিধ্বস্ত হয় শোকের সঙ্গে জানাচ্ছি, কেউই বেঁচে ফিরতে পারেননি।’

৮০০ কিলোমিটার দূরের শহর গোইয়ানিয়ার ক্লাব ভিলা নোভার বিপক্ষে মঙ্গলবার ব্রাজিলের ঘরোয়া কাপ টুর্নামেন্ট কোপা ভের্দের শেষ ষোলোতে খেলার কথা ছিল পালমাসের। ব্রাজিলের দক্ষিণ ও উত্তর–পূর্ব অঞ্চলের বিখ্যাত দলগুলোর বাইরের ছোট দলগুলোকে নিয়েই আয়োজিত হয় এই টুর্নামেন্ট। সঙ্গে ম্যাচটি স্থগিত করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় আয়োজকরা৷

ব্রাজিলীও ফুটবলভক্তরা এখন শুধু প্রার্থনাই করতে পারেন, ব্রাজিলের ফুটবলে বিমান দুর্ঘটনার শোক যেন এটিই শেষ হয়। গত সাত বছরে এমন তিনটি বিমান দুর্ঘটনা হয়েছে। এর মধ্যে ২০১৬ সালের ২৮ নভেম্বর শাপেকোয়েনসে ক্লাবের বিমান দুর্ঘটনা বিশ্বফুটবলকে নাড়িয়ে দিয়েছিল।

দক্ষিণ আমেরিকার মহাদেশীয় ক্লাব ফুটবলের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ টুর্নামেন্ট কোপা সুদামেরিকানার (ইউরোপা লিগ) ফাইনালে কলম্বিয়ার আটলেটিকো নাসিওনালের বিরুদ্ধে খেলার কথা ছিল শাপেকোয়েনসের। খেলোয়াড়, কোচ, কর্মকর্তা ও সাংবাদিক মিলিয়ে মোট ৭৭ জন ছিলেন বিমানে। কিন্তু মেদেলিনে বিধ্বস্ত হয় প্লেনটি। ৭৭ জনের মধ্যে ৭১ জনই প্রাণ হারান৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।