স্টাফ রিপোর্টার, হাওড়া: আজ থেকে ঠিক ৭৪ বছর আগে ১৯৪৩ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি হাওড়া ব্রিজ জনসাধারণের পরিষেবায় খুলে দেওয়া হয়েছিল।

সেই দিনের কথা স্মরণ করে এবছর হাওড়া ব্রিজের ৭৫ তম জন্মদিন পালিত হচ্ছে৷ এই উপলক্ষে শনিবার বিকেলে হাওড়া ব্রিজে কেক কেটে জন্মদিন পালন করা হয়।

লায়ন্স ক্লাব হাওড়ার উদ্যোগে হাওড়া ব্রিজের ৭৫ তম জন্মদিন পালিত হয়। পাশাপাশি, হাওড়া ব্রিজের জন্মদিন উপলক্ষে সেজে উঠেছে গোটা ব্রিজ। রঙিন পতাকায় সুসজ্জিত করা হয়েছে গোটা ব্রিজ।

পালিত হচ্ছে জন্মদিন

হুগলি নদীর উপর দিয়ে ৭০৫ মিটার লম্বা বিশ্বের দীর্ঘতম ঝুলন্ত এই সেতু কলকাতা ও হাওড়া দুই শহরের যোগসূত্র রচনা করেছে। প্রতিদিন গড়ে প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজার যানবাহন চলাচল করে থাকে এই সেতুর উপর দিয়ে। ৫ লক্ষেরও বেশি মানুষ সেতুর ক্যাবওয়ে ধরে পায়ে হেঁটে এই সেতু পারাপার করে থাকেন। বিশ্বের অন্যতম এই নিদর্শন হাওড়া ব্রিজকে কলকাতার গেটওয়ে বলা হয়ে থাকে। ৮২ মিটার উচ্চতার এই ব্রিজের নির্মাণ শুরু হয়েছিল ১৯৩৬ সালে। সেই কাজ শেষ হয় ১৯৪২ এ। এরপর ১৯৪৩ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ব্রিজের সূচনা হয়।

সেদিন থেকেই খুলে যায় টোল-ফ্রি এই ব্রিজ। ব্রেথওয়েট, বার্ন ও জেসপ কন্ট্রাকশনের নির্মাণ করেছিল। এই ব্রিজের পোশাকি নাম রবীন্দ্র সেতু। নোবেল জয়ী কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নামে এর নামকরণ করা হয়েছিল। বর্তমানে ব্রিজটির রক্ষণাবেক্ষণ করে থাকে কলকাতার পোর্ট ট্রাস্ট সংস্থা।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ