শঙ্কর দাস, বালুরঘাট: ‘সুযোগ যখন পেয়েছ, তখন দাগ কেটে যাও’ রামকৃষ্ণ পরমহংস দেবের সেই বাণী মেনেই সকলকে এগিয়ে চলার পরামর্শ দিলেন প্রাক্তন মন্ত্রী শঙ্কর চক্রবর্তী। ‘‘ফলের আশা না করে সব সময় নিজের এলাকার তথা মানুষের জন্য ভালো কিছু করে যাও।’’ সোমবার বালুরঘাটে তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠনের অনুষ্ঠানে রামকৃষ্ণ কথামৃতের এই বাণীই মেনে চলার পরামর্শ দিলেন তিনি।

এদিন ওয়েস্ট বেঙ্গল তৃণমূল প্রাইমারি টিচার্স এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে উন্নয়ন মূলক কাজের নিরিখে দক্ষিণ দিনাজপুরের জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তথা প্রাক্তনমন্ত্রী শঙ্কর চক্রবর্তীকে সংবর্ধনা জ্ঞাপন করা হয়। এই উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রাক্তনমন্ত্রী তথা ম্যাকিনটোশ বার্নের চেয়ারম্যান শঙ্কর চক্রবর্তী তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘‘২০১০ সাল অবধি সকলের কাছে দক্ষিণ দিনাজপুর অবহেলিত ও পিছিয়ে থাকা জেলা হিসেবেই পরিচিত ছিল।’’

২০১১ সালে তিনি যখন রাজ্যে মন্ত্রিসভায় দায়িত্ব পান তখন তাঁর একটাই লক্ষ্য ছিল অন্যান্য এলাকার পাশাপাশি দক্ষিণ দিনাজপুরকে পিছিয়ে থাকার কলঙ্ক থেকে মুক্ত করা। সেই ভাবনা থেকেই তিনি রাজ্যের পূর্তমন্ত্রীর দায়িত্ব থাকাকালীন বাম আমলে অবহেলার শিকার এই জেলাকে রাস্তাঘাট শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সব দিক দিয়েই উন্নতি সাধন ঘটিয়েছেন। আর এই সবটাই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঐকান্তিক প্রচেষ্টাতেই তিনি সম্ভব করতে পেরেছেন। এখন কেউই আর দক্ষিণ দিনাজপুরকে পিছিয়ে পড়া ও অবহেলিত জেলা বলতে পারবে না বলেও তিনি দাবি করেছেন।

এদিন তিনি মা-মাটি-মানুষ সরকারের আমলে জেলার উন্নয়ন মূলক বিভিন্ন কাজের উল্লেখ করে উপস্থিত শিক্ষকদের বলেন, ‘‘রামকৃষ্ণের বাণীকে অনুসরণ করার পরামর্শ দিয়ে বলেন শুধু কাজ করে যান। যে কাজ আপনার চারপাশের মানুষের উপকারে লাগবে। এলাকার উন্নতি সাধন ঘটবে।’’ এদিনের সংবর্ধনা জ্ঞাপন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ডব্লিউ বিটিপিটিএ’র জেলা সভাপতি দিব্যেন্দু সমজদার ও জেলার প্রায় শ’দুয়েক প্রাথমিক শিক্ষক শিক্ষিকা।