নয়াদিল্লি: তিনি হলেন মনীষা কৈরাল। বি-টাউনের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী। যিনি গত ২০১২ সালে ডিম্বাশয়ের ক্যানসারে আক্রান্ত হয়েছিলেন। বর্তমানে পুরোপুরি সুস্থ রয়েছে এই অভিনেত্রী। মারণ ব্যাধি ক্যানসারকে কিভাবে তিনি জয় করলেন সেই ঘটনার কথায় এদিন নিজের দুটি ভিন্ন ছবি পোস্ট করে টুইটারে শেয়ার করেছেন বলিউড খ্যাত এই অভিনেত্রী। শুধু তাই নয় ক্যানসারের সঙ্গে যুদ্ধ করে জীবনে ফের দ্বিতীয়বার নতুন করে বেঁচে থাকার সুযোগ এবং স্বাদ পাওয়ায় চিরকৃতজ্ঞ মনীষা।

মারণ ব্যাধি ক্যানসারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ জয় করে ফেরা এই অভিনেত্রী এদিন টুইটার অ্যাকাউণ্টে নিজের দুটি কোলাজ করা ছবি শেয়ার করেছেন। এবং সেই ছবির ক্যাপশনে কি লিখেছেন জানেন? ” জীবনে দ্বিতীয়বার বেঁচে থাকার সুযোগ পাওয়ার জন্য চিরকৃতজ্ঞ। এটি একটি আশ্চর্যজনক সুন্দর-স্বাস্থ্যকর এবং নতুন এক জীবন উপহার দিয়েছে তাঁকে।” জীবনের কঠিন সময়ে তাঁর পাশে থাকার জন্য সবাইকে ধন্যবাদও জানিয়েছেন তিনি।

তাঁর শেয়ার করা প্রথম ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে,হাসপাতালের বেডে শুয়ে রয়েছেন মনীষা কৈরাল। এবং তাঁর নাকের ভিতরে দেওয়া রয়েছে অক্সিজেনের নল। এই ছবিটি দেখে তাঁর ভক্তরা সহজেই বুঝতে পারবে সেই সময় তিনি কতটা অসুস্থ ছিলেন।

তাঁর শেয়ার করা অন্য একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে প্রানবন্ত মনীষা। পাহাড়ের কোলে দাঁড়িয়ে রয়েছে। তাঁর চারিপাশে ছড়িয়ে রয়েছে বরফ।

শুধু নিজের ছবি পোস্ট নয়। এই অভিনেত্রী ক্যানসার নিয়ে নিজের জীবনের অভিজ্ঞতার কথাও জানিয়েছে একটি বইতে। সেখানে তিনি লিখেছেন, ক্যানসার কীভাবে তাঁকে আবার নতুন জীবন দান করল। কীভাবে ইউএস ‘তে তাঁর চিকিৎসা চলছিল। এবং এই মারণব্যাধির হাত থেকে বাঁচতে প্রতিনিয়ত তিনি কতটা যুদ্ধ করতেন। সবই উল্লেখ রয়েছে তাঁর সেই বইতে।

মনীষা আরও জানিয়েছেন, ” আমি মনে করি ক্যানসার আমার জীবনে একটি উপহার স্বরুপ। আমার লক্ষ্যকে অনেক তীক্ষ্ণ করে দিয়েছে এই ক্যানসার। আমার মনকে আরও পরিষ্কার করে দিয়েছে।  আমার দৃষ্টিভঙ্গি বাস্তবায়িত। আমি আমার নিষ্ক্রিয়-আগ্রাসী রাগ এবং উদ্বেগকে আরও শান্তিপূর্ণ অভিব্যক্তিতে রূপান্তরিত করতে সফল হয়েছি।”

এদিকে ক্যানসার জয়ে তিনি যেমন সফল হয়েছেন। তেমনি দীর্ঘ দিন পরে ব্লকবাস্টার হিট ছবি ” সঞ্জু” দিয়ে সে আবার বলিউড জগতে ফিরে এসেছেন। তাকে নেটফ্লিক্সের লাস্ট স্টোরিজ, প্রিয় মায়া এবং সঞ্জয় দত্ত অভিনীত প্রশস্তনামেতেও দেখা গিয়েছিল।