স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে৷ আগুন নিভেছে৷ এবার তদন্তের পালা৷ সেই তদন্তকে এগিয়ে নিয়ে যেতেই বাগরি মার্কেটের ভিতরে ঢুকল ফরেন্সিক বিশেষজ্ঞ দল৷ আগুন লাগার চারদিন পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তাঁরা৷

এখান থেকে তাঁরা নমুনা সংগ্রহ করবেন৷ সেই রিপোর্ট পাওয়ার পরেই জানা যাবে আগুন লাগার প্রকৃত কারণ। আগুন লাগার কারণ নিয়ে উঠেছে একাধিক প্রশ্ন। উঠেছে অন্তর্ঘাতের অভিযোগ। সেই সব অভিযোগ খতিয়ে দেখেই তৈরি হবে মূল রিপোর্ট৷

এদিকে, আগুন লাগার মূহুর্তের সিসিটিভির একটি ফুটেজ এসেছে কলকাতা পুলিশের হাতে। পুলিশ সূত্রে খবর ফুটেজে দেখা গিয়েছে আগুন লাগার পরেই ঘটনাস্থল ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছে দুজন যুবক৷ তারই সঙ্গে আরও দুজন ব্যক্তিকে মোটর বাইকে করে পালাতে দেখা গিয়েছে৷ প্রশ্ন উঠছে, এরা কারা? বাগরি মার্কেটে আগুন লাগার ঘটনার সঙ্গে কী এদের কোনও যোগ রয়েছে৷

এবার পুলিশের সামনে চ্যালেঞ্জ এদের খুঁজে বের করা৷ পুলিশের প্রশ্ন আগুন লাগার ঘটনার দিন ওই গভীর রাতে এই সব যুবকরা বাগরি মার্কেটের বাইরে কি করছিল?

পুলিশের আরও প্রশ্ন, কেনই বা আগুন লাগার পরেই ঘটনাস্থল থেকে কোনও রকমে ছুটে পালিয়ে গেল তারা! যদি তারা স্থানীয় বাসিন্দা হতেন, তবে আগুন লাগলে পালিয়ে যেতেন না৷ বরং তা নেভানোর কাজে উদ্যোগ নিতেন৷ এই তত্বগুলোই ভাবাচ্ছে পুলিশকে৷ বেশকিছু মিসিং লিঙ্ক নিয়ে আপাতত কাজ করছে পুলিশ৷ তবে এই জটিলতা বেশ কিছুটা কাটবে ফরেন্সিক তদন্তের রিপোর্ট পুলিশের হাতে আসার পরে৷