মুম্বই: করন জোহরের পার্টিতে মেলেনি কোনো নিষিদ্ধ মাদক। ক্লিনচিট দিল ফরেনসিক সায়েন্স ল্যাবরেটরি। ২০১৯ এ করণ তাউর বাড়িতে তারকাদের নিয়ে একটি পার্টির ভিডিও পোস্ট করেছিলেন। সেই পার্টিতে ছিলেন বলিউডের প্রথম সারির তারকারা। ভিডিওটি মুহূর্তে ভাইরাল হয়েছিল। নেটিজেনরা দাবি করেন ওই পার্টিতে তারকারা মাদক নিচ্ছিলেন।

আগেও করণ জোহর সাফ জানিয়ে ছিলেন সেই পার্টিতে কোনো নিষিদ্ধ মাদক ছিল না। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে মাদক যোগ পাওয়া যায়। তখন এই ভিডিওর প্রসঙ্গ ফের উঠে আসে। অনেকেই দাবি করেন করণ জোহরের এই পার্টির ভিডিওটি খতিয়ে দেখা হোক। সেই দিন সত্যিই তারকারা মাদক নিচ্ছিলেন কিনা বিষয়টি দেখা হোক।

সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি-র এক প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে ফরেনসিক সায়েন্স ল্যাবরেটরি জানিয়েছে যে করণ জোহরের পার্টিতে কোনো মাদক ছিল না। পরিচালককে ক্লিনচিট দেওয়া হয়েছে। একটি সাদা দ্রব্য দেখে অনেকেই মনে করেছিলেন সেটি আসলে মাদক। ফরেনসিক সায়েন্স ল্যাবরেটরি জানিয়েছে ওই সাদা আলো আসলে টিউবলাইট এর প্রতিফলন। তারা জানিয়েছে ভিডিওতে মাদকজাতীয় কোন কিছুর উপস্থিতি ধরা পড়েনি।

এই পার্টিতে উপস্থিত ছিলেন দীপিকা পাডুকোন, রণবীর কাপুর, ভিকি কৌশল, শাহিদ কাপুর, অর্জুন কাপুর, মালাইকা আরোরা সহ আরো অনেকে। সেপ্টেম্বর মাসে করণ জোহর একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জানিয়েছিলেন তার বাড়ির পার্টিতে কোন মাদক ছিল না। কেউ মাদক নেন নি। করণ দাবি করেছিলেন‌ কয়েকটি সংবাদ মাধ্যম এভাবে খবরটিকে দেখাচ্ছে। পার্টির ভিডিওকে ভুলভাবে মানুষের কাছে তুলে ধরা হচ্ছে। সমস্ত অভিযোগ কে তিনি ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছিলেন।

গত বছর ওই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরে শিরোমণি অকালি দলের এমএলএ মনজিন্দর সিং শীর্ষ মুম্বই পুলিশের কাছে এই অভিনেতাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন।

কিন্তু তখন ঘটনার কোনো তদন্ত হয়নি। সম্প্রতি ফের শিরোমণি অকালি দলের এমএলএ মনজিন্দর সিং শীর্ষ নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোর কাছে করন জোহরের বাড়ির সেই ড্রাগ পার্টির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। তিনি একটি টুইট করে জানান, এনসিবি বিএসএফ হেডকোয়ার্টারের প্রধান রাকেশ আস্তানার সঙ্গে তিনি দেখা করেছিলেন। কিন্তু অবশেষে সেই পার্টিকে ক্লিনচিট দিল ফরেন্সিক সাইন্স ল্যাবরেটরি।

জেলবন্দি তথাকথিত অপরাধীদের আলোর জগতে ফিরিয়ে এনে নজির স্থাপন করেছেন। মুখোমুখি নৃত্যশিল্পী অলোকানন্দা রায়।