ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি : নতুন কোনও সংঘাতের ইঙ্গিত দিলেন কি প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং? বায়ুসেনার তিনদিনের বৈঠকে রাজনাথের কথায় তেমনই ইঙ্গিত মিলছে। বুধবার বৈঠকে বায়ুসেনার কমান্ডারদের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বলেন কম সময়ের নোটিশেই যেন প্রস্তুত হতে পারে বায়ুসেনা, এমনভাবে তৈরি থাকতে হবে।

এদিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন বায়ুসেনার কমান্ডারদের যেকোনও পরিস্থিতির জন্য সতর্ক থাকতে হবে, তৈরি থাকতে হবে। এমন পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে, যাতে খুব কম সময়ের মধ্যে প্রস্তুতি সারতে হবে। সেইক্ষেত্রে হাতে বিশেষ সময় হয়ত পাওয়া যাবে না। রাজনাথের এই বক্তব্যই জল্পনা উসকে দিচ্ছে। তাহলে কি নতুন করে চিনের সঙ্গে সংঘাতের রাস্তায় হাঁটতে চলেছে ভারত।

কারণ ফিঙ্গারস এলাকা নিয়ে এখন দ্বন্দ্ব রয়ে গিয়েছে। কোনওভাবেই ওই এলাকা থেকে পিছু হঠেনি চিন সেনা। ফলে একাধিক বৈঠকের আলোচনায় সমাধানসূত্র না বেরিয়ে আসায় এবার চরম সিদ্ধান্তের রাস্তায় হাঁটতে পারে ভারত, বলেই মনে করছেন কূটনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। ভারত চিনের সীমান্ত সমস্যার মধ্যেই প্রতিরক্ষামন্ত্রীর এই বক্তব্য বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

চিনকে এই বক্তব্যের মাঝেই পরোক্ষে তাহলে কি হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন রাজনাথ, প্রশ্ন উঠছে। এদিকে, বুধবার শুরু হয়েছে বায়ুসেনার তিনদিনের বৈঠক। বৈঠকে যোগ দিয়ে ভারত চিনের সীমান্ত সংঘাতে বায়ুসেনার ভূমিকার প্রশংসা করেছেন রাজনাথ। প্রতিদিন পূর্ব লাদাখের সীমান্ত জুড়ে নাইট পেট্রলিং করছে বায়ুসেনা।

নয়াদিল্লিতে বায়ুসেনার সদর দফতর বায়ু ভবনে বসে সেই কাজের প্রশংসা করলেন রাজনাথ সিং। তিনি বলেন এই কঠিন পরিস্থিতিতে যেভাবে প্রতিবেশি দেশকে চাপে ফেলেছে বায়ুসেনা, তা প্রশংসার যোগ্য।

অন্যদিকে, দেশ জুড়ে চলা করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলাতেও যেভাবে বায়ুসেনা কাজ করছে, তা অভূতপূর্ব বলে ব্যাখ্যা করেন তিনি। পূর্ব লাদাখের পরিস্থিতি পর্যালোচনা, মোতায়েন করা রাফায়েলের সংখ্যাবৃদ্ধির গুরুত্ব, চিনা সেনার অবস্থান সহ একাধিক রণকৌশল সাজিয়ে নিতে এই বৈঠক বলে জানা গিয়েছে।

তবে শুধু লাদাখ নয়, দেশের উত্তর ও উত্তর পূর্ব প্রান্ত জুড়ে চিনের সীমান্তেই নিজেদের শক্তি বৃদ্ধি করতে চাইছে বায়ুসেনা। অরুণাচল প্রদেশ, সিকিম ও উত্তরাখণ্ডের চিন সীমান্তের পরিস্থিতিও এই বৈঠকে খতিয়ে দেখা হবে। প্রথম পর্যায়ের রাফায়েল মোতায়েন করা হয়েছে লাদাখ সেক্টরে।

সেক্ষেত্রে, আরও রাফায়েল ফাইটার জেট মোতায়েন করা হবে কীনা, তা দেখা হবে। সূত্রের খবর জুলাই মাসের শেষেই বায়ুসেনার হাতে এসে পৌঁছবে কমপক্ষে ৩৬টি রাফায়েল ফাইটার জেট। এদিকে, বায়ুসেনা প্রধান আর কে এস বাদোরিয়া এদিন বলেন বায়ুসেনা সব রকম পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য প্রস্তুত। কেন্দ্রের তরফ থেকে যত কম সময়েই নোটিশ দেওয়া হোক না কেন, বায়ুসেনা তৈরি রয়েছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।