স্টাফ রিপোর্টার, হাওড়া : করোনার জেরে দেশজুড়ে লাগু হয়েছে মহামারী আইন। লকডাউনে ভিড় এড়াতে হাওড়া জেলার বিভিন্ন ফেরি পরিষেবা ইতিমধ্যেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে—যার মধ্যে আমতা-২ ব্লকের গোপীগঞ্জ ঘাট অন্যতম।যার ফলে সমস্যার সম্মুখীন হয়েছিলেন গ্রামীণ হাওড়ার দীপাঞ্চল ভাটোরার কয়েকশো মানুষ। মমতার এক নির্দেশে সচল হল ফেরি ব্যবস্থা।

উল্লেখ্য,ভাটোরার এই ঘাট থেকেই রূপনারায়ণ পেরিয়ে যাওয়া যায় পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুর থানার গোপীগঞ্জ ও ঘাটাল শহর।মূলত,জলপথেই গোপীগঞ্জ থেকে কাঁচা আনাজ ও মুদিখানার বিভিন্ন সামগ্রী হাওড়ার ভাটোরায় আসে।ফেরি সার্ভিস বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সব্জি আমদানিতে অসুবিধার সৃষ্টি হয়।অন্যদিকে,সাধারণ মানুষকে খাদ্য সংগ্রহ করতে যাতে কোনোরূপ অসুবিধার সম্মুখীন না হতে হয় তার জন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বারবার কাঁচা আনাজের বাজার চালু রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।তাই আমতা-২ ব্লক প্রশাসনের উদ্যোগে প্রত্যেকদিন সকালে ব্যবসায়ীদের জন্য বিশেষ ফেরি পরিষেবা চালু হল।এর ফলে দুই জেলার মধ্যে সব্জি ও মুদিখানা আমদানি-রপ্তানির ক্ষেত্রে অত্যন্ত সুবিধা হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

শুক্রবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে এসে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন ,ক্ষমতার অপব্যবহার করা যাবে না। পুলিশের বিরুদ্ধে অহেতুক লাঠিচার্জ এর অভিযোগ উঠেছে। এই অভিযোগ পাওয়ার পরই ওইদিনই পুলিশকে ক্ষমতার অপব্যবহার না করার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী।

পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ এসেছে হাওড়ায় নিজের সন্তানের জন্য দুধ আনতে যাচ্ছেন এমন যুবককে পিটিয়ে মেরেছে পুলিশ। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে পুলিশের তরফে। এসব অভিযোগে পাচ্ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এরপর এই শুক্রবার নবান্নে এক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী সাফ জানান, “কেউ ক্ষমতার অপব্যবহার করবেননা। মানুষের সমস্যা হলে মানবিক হতে হবে। মানবিক ভাবে মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে।”