সৌপ্তিক বন্দ্যোপাধ্যায় , কলকাতা : শনিবার বাজারে ভিড় দেখলে চমকাতে হয়। রবিবার জনতা কার্ফু। তাই সকাল থেকেই লোকজন নেমে পড়েছেন রবিবারের বাজার শনিবারেই করে রাখতে। হাওড়া থেকে কলকাতা সর্বত্র চিত্রটা একইরকম। বৃহস্পতিবার রাতে প্রধানমন্ত্রী জনতা কার্ফু ঘোষণা করেন। সেই কার্ফু সফল করতে ব্যাবসায়ি থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ সফল করতে যে শনিবার থেকেই ময়দানে নেমে পড়েছেন বাজারের চিত্রটা দেখলেই স্পষ্ট হয়ে যাবে।

কদমতলার বাজারের বহুদিনের আলুর ব্যাবসায়ি বিয়ন্ত লাল। তিনি বলেন, ‘শনিবার বাজারের কবে এত ভিড় দেখেছি মনে পড়ছে না। সকাল সাতটা থেকে লোকের ভিড় লেগে গিয়েছে। শনিবার না রবিবার সেটা বোঝা যাচ্ছে না।’ হাওড়া বাজারের মাছের ব্যাবসায়ি মাকসুদ মহম্মদ বলেন , ‘আমাদের এখানে রোজকার ভিড়। কারণ এটা তো পাইকারি বাজার। তবু অন্যান্য শনিবারের তুলনায় ব্যাবসায়িরা যারা পাইকারি জিনিস নেন তারা অনেক বেশি এসেছেন আজকে। কারণ কাল সকালে বাজারে অনেকেই আসবে না বলে নিজেরাই ঠিক করে নিয়েছে। ওই জনতা কার্ফু আছে তার জন্য। তাই আগে থেকেই মাল স্টক তুলে রাখতে আসছেন ব্যাবসায়িরা। তাই তুলনামূলক এই শনিবারে সত্যিই ভিড় বেশি।’ মানিকতলা বাজারের সবজি ব্যাবসায়ি পরেশবাবুকে যোগাযোগ করা হলে তিনি প্রথমেই বলেন , ‘আজ বেশি কথা বলা যাবে না।’ কারণ জিজ্ঞাসা করাতে তিনি বলেন, ‘বাজারে প্রচুর খদ্দেরের চাপ। এতটা শনিবার সাধারনত হয় না। এই সপ্তাহে রবিবার জনতা কার্ফু আছে বলে মানুষ আগে থেকেই জিনিসপত্র তুলে রাখতে চাইছেন। খদ্দের সামলাতে হিমশিম অবস্থা সকাল থেকে।’

প্রসঙ্গত, ‘আগামী রবিবার সকাল ৭টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত জনতা কার্ফুর ডাক দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সে-দিন জরুরি পরিষেবার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তি ছাড়া আর সবাইকে ১৪ ঘণ্টা ঘরে থাকতে বলেছেন মোদী। বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী। ওইদিন দুপুরের পর থেকেই জল্পনা শুরু হয়েছিল, গোটা দেশে ‘লকডাউন’ বা সব কিছু বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষণা করতে পারেন নরেন্দ্র মোদী। তারপর রাত আটটায় নরেন্দ্র মোদী বলেন, জনতা কার্ফুর কথা। তাঁর আবেদন, ‘২২ মার্চ সকাল ৭টা থেকে রাত ন’টা পর্যন্ত কেউ যেন এমনকি পাড়ার মোড়ের আড্ডাতেও না-যান। তবে পুলিশ, দমকল, স্বাস্থ্য, সংবাদমাধ্যম ইত্যাদি জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত মানুষজন কাজে যাবেন।’ তাঁদের সম্মান জানাতে সকলকে সে-দিন বিকেল ৫টায় বাড়ির দরজা, বারান্দা, জানালায় দাঁড়িয়ে পাঁচ মিনিট হাততালি দিতে বা ঘণ্টা বাজাতে অনুরোধ করেন মোদী।