ওয়াশিংটন:  দীর্ঘদিন ধরে ফ্লাইং কার তৈরি করার লক্ষ্যে কাজ করছে বিভিন্ন সংস্থা। এবার ইলেকট্রিক ফ্লাইং কার তৈরির করার লক্ষ্যে জার্মান গাড়ি নির্মাতা সংস্থা ফোক্সভাগনের স্পোর্টস কার ব্র্যান্ড পোর্শের সঙ্গে হাত মেলাল মার্কিন বিমান নির্মাতা সংস্থা বোয়িং। গাড়িগুলির মাধ্যমে শহর এলাকায় যাত্রী পরিবহন করার লক্ষ্যে কাজ করছে সংস্থা দুটি।

এরোপ্লেন নির্মাণে এয়ারবাস SE এবং অন্যান্য সংস্থার সঙ্গে জোর প্রতিদ্বন্দ্বীতায় রয়েছে বোয়িং। একেবারে ছোট অটোমেটেড ফ্লাইং গাড়ির ক্ষেত্রেও চলছে এই প্রতিযোগিতা। বোয়িংয়ের প্রস্তাবিত অটোমেটেড গাড়িটি একেবারে সোজাসুজি ভাবে উড়তে এবং অবতরণ করতে পারবে। বছরের শুরুর দিকেই একটি ফ্লাইং প্রটোটাইপের পরীক্ষামূলকভাবে ওড়ায় বোয়িং। দুই থেকে চারজন যাত্রী নিয়ে উড়ে প্রায় ৫০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিতে পারে ‘গাড়িটি’।

কয়েক মাস আগেই একটি স্বয়ংক্রিয় গাড়ির প্রটোটাইপ দেখিয়েছে এয়ারবাস। ফোক্সভাগেনের প্রিমিয়াম ব্র্যান্ড আউডির সঙ্গে এই গাড়িটি বানিয়েছে তারা। রাস্তায় চলতে ও আকাশে উড়তে সক্ষম এটি। পোর্শে এমন একটি গাড়ি বানানোর চেষ্টা করছে যা ট্যাক্সি বা রাইড শেয়ারিংয়ের জন্য ব্যবহার করা সম্ভব।

সংস্থা দু’টির পক্ষ থেকে বলা হয়, চুক্তির একটি অংশ হিসেবে বোয়িং এবং পোর্শে তাদের বিশেষ এই ফ্লাইং গাড়ির বাজারের বিষয়টি দেখবে। বিশেষভাবে মেট্রোপলিটন শহর এবং ঘনবসতিপূর্ণ অঞ্চলগুলোতে এর ব্যবহার কেমন হতে পারে তা যাচাই করে দেখবে তারা।