ক্যানবেরা: অমন দৃশ্য দেখে চমকে গিয়েছিলেন সকলে। বৃষ্টির মতোই যেন আকাশ থেকে কিছু ঝরে পড়ল একের পর এক পাখি ৷ মাটিতে আছড়ে পড়ার পর বোঝা গেল সেগুলি মরা পাখি। অদ্ভূত এই ঘটনাটি ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ার দক্ষিণাংশে অ্যাডিলেডের একটি খেলার মাঠে।

পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি ওই খেলার মাঠে হুড়মুড় করে মৃত পাখিগুলি ঝরে পড়তে দেখে চমকে গিয়েছিল এলাকাবাসী। তাঁরা জানিয়েছেন, পাখিগুলি সবই লম্বা ঠোঁটওলা এবং সাদা ও গোলাপি পালকে মেশানো করেলা পাখি। অস্ট্রেলিয়ার এখন এই পাখি বিরল প্রজাতির ৬০বেশি পাখি মারা যায়। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, কয়েকটি পাখি মরা অবস্থাতেই মাটিতে আছড়ে পড়েছিল। আবার কয়েকটি পাখি মাটিতে পড়ে যন্ত্রণায় ছটফট করতে থাকে কিছুক্ষণ , তারপরে মারা যায়।

খবর পেয়ে পুলিস এবং বন দফতরের লোকেরা গিয়ে পাখিগুলিকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। প্রাথমিক তদন্তে পশু চিকিৎসকরা মনে করছে, পাখি মারতে যেধরনের বিষ ব্যবহার করে চোরাশিকারিরা সেই বিষেক্রিয়ায় পাখিগুলির মৃত্যু হয়েছে। ওই বিষ ধীরে শরীরে কাজ করেছে। ফলে প্রথমে কিছু বোঝা যাচ্ছিল না। মৃত পাখিগুলির দেহে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠান হয়েছে ৷ তবে প্রকৃত কারণ কতটা জানা যাবে তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে স্থানীয় প্রশাসনের।

অস্ট্রেলিয়ার শহর এবং গ্রাম সব জায়গাতেই সাধারণত এই করেলা পাখি পাওয়া যায়। বেশ শক্তিশালী এই পাখি খুবলে বাড়ি, কাঠের জিনিসপত্র, বিদ্যুতের লাইন নষ্ট করে দিতে পারে। তাছাড়া ফসল খেয়ে নিয়ে ক্ষতি করে। ফলে পুলিসের সন্দেহ, ফসল বাঁচাতেই পাখিগুলিকে কেউ বিষ দিয়েছিল।