বনগাঁ: ফের ভিনরাজ্যে মৃত্যু। এবার উত্তর চব্বিশ পরগণার বনগাঁ থেকে কেরলে ঘুরতে গিয়ে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল মধ্যবয়স্ক তিন মহিলা পর্যটকের। এই ঘটনায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে আরও দুই মহিলা পর্যটক। তাদের কেরলের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গিয়েছে, কেরলের ৪৭ নম্বর জাতীয় সড়কে আলেপ্পিতে শুক্রবার দুপুরে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় ওই তিন পর্যটকের। সম্পর্কে তারা তিন বোন। মৃতদের নাম শোভা বিশ্বাস,গীতা রায়, মিতা বর্মন। যে দুইজন মহিলা আক্রান্ত হয়েছেন তাঁদের নাম লক্ষী হালদার এবং কাকলি রায়।

প্রসঙ্গত, উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁর টেংরা গ্রামের বাসিন্দা বড় বোন শোভা বিশ্বাস তাঁর চার বোন গীতা রায়, মিতা বর্মন, লক্ষ্মী হালদার, কাকলি রায়কে সঙ্গে নিয়ে অক্টোবরে মাসের ১৫ তারিখ শালিমার স্টেশন থেকে ট্রেন ধরেছিলেন। কেরলের তিরুবনন্তপুরমে বেড়াতে যানl শুক্রবার দুপুর ১১টা পর্যন্ত শোভা বিশ্বাসের সঙ্গে বাড়িতে কথা হয়েছিল তাঁর পরিবারের সদস্যদের। তারপরই দুপুর আড়াইটার সময় শোভা বিশ্বাসের ছেলের কাছে খবর আসে কেরালার ৪৭ নম্বর হাইওয়ের উপরে আলেপ্পিতে পথ দুর্ঘটনায় শোভা বিশ্বাস ও আরো দুই মাসির গীতা রায়, মিতা বর্মন মৃত্যু হয়েছে।

বাকি দু’জনকে লক্ষ্মী হালদার ও কাকলি রায়কে আশঙ্কাজনক অবস্থায় কেরলের টি ডি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছেl অতিদ্রুত যাতে তাদের মৃতদেহ বাড়িতে ফেরানো যায় তার সুব্যবস্থা করবার জন্য প্রশাসনের কাছে আবেদন জানিয়েছে মৃতদের পরিবারের সদস্যরা। এই খবরে শোকের ছায়া নেমে এসেছে বনগাঁর টেংরা গ্রামে।