ঝাড়খণ্ড : এই ঘটনা নতুন নয়। ফের মাওবাদী হামলা ঝাড়খণ্ডে। শুক্রবার মাওবাদীদের গুলিতে মৃত্যু হল ৫ পুলিশ কর্মীর। ঝাড়খণ্ডের সেরাইকেলা খারসাওয়ান এলাকায় এদিনের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে গোটা রাজ্য জুড়ে।

জেলা পুলিশ সুপার চন্দন কুমার বলেন, “১০ থেকে ১২ জন মাওবাদী মোটর বাইকে চড়ে আসে। এসেই চারদিক থেকে ঘিরে ফেলে পুলিশ কর্মীদের। কুকরু বাজার এলাকার কাছে তাঁদের লক্ষ্য করে আচমকাই গুলি চালাতে থাকে। যার ফলে মৃত্যুর কোলে ঢলে পরেন পুলিশ কর্মীরা। এমনকি নিহত এক পুলিশ কর্মীর কাছ থেকে ৫ টি অস্ত্র নিয়েও চম্পট দেয় তারা”

সাব ডিভিশনা ল পুলিশ অফিসার অবিনাশ কুমার জানান, ওই ৫ পুলিশ কর্মীর মধ্যে ছিলেন দুজন অ্যাসিসটেনট সাব ইন্সপেকটর সহ তিন জন পুলিশ কনস্টেবল।

জানা গিয়েছে, ঝাড়খণ্ড-বাংলা সীমান্ত এলাকার তিরুলদি পুলিশ স্টেশন এলাকায় এদিন রোজ দিনের মতোই টহলদারি চালাচ্ছিলেন পুলিশ কর্মীরা। সেই সময় হঠাৎই দশ থেকে বারো জন মাওবাদী মোটর বাইকে চড়ে আসে। এসেই চারদিক থেকে ঘিরে ফেলে পুলিশ কর্মীদের। কুকরু বাজার এলাকার কাছে তাঁদের লক্ষ্য করে আচমকাই গুলি চালাতে থাকে। যার ফলেই মৃত্যু হয়েছে পুলিশ কর্মীদের। তাঁদের সঙ্গে থাকা সমস্ত আগ্নেয়াস্ত্র নিয়েও চম্পট দেয় তারা।

এই ঘটনার চরম নিন্দা করেছেন ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী রঘবর দাস। বলেন, “এনাদের শহীদ হওয়া বিফলে যাবে না।”

সমগ্র রাজ্যই শহীদদের পরিবারের পাশে আছে। তিনি আরও বলেন, এই ঘটনা কখনই নিরাপত্তা বাহিনীকে নীতিচ্যুত করবে না। মাওবাদীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণ করবে ঝাড়খণ্ড সরকার।