মুম্বই: দীপিকা-র রাজপুত লুকের প্রথম পোস্টার প্রকাশিত হওয়ার পরে রাজপুত কমিটির মুখ্য সদস্য কারনি সেনার তরফে প্রথম আপত্তি তোলা হয়। অভিযোগ করা হয় ছবিতে অবৈধ ভাবে ঐতিহাসিক তথ্যকে বিকৃত করে ‘পদ্মাবতী’ রূপান্তরে চিতোরের রাণী পদ্মিনীর সাথে দিল্লি সুলতান আলাউদ্দিন খলজির প্রেম দেখানো হয়েছে।

এরপর বিস্তর গোলমাল বাঁধে ছবির শ্যুটিং থেকে শুরু করে পোষ্টার প্রমোশন নিয়ে। তবে রাণী পদ্মাবতীর স্বামী হিসাবে চিতোরের রাজা মহারাওয়াল রতন সিং-এর ভুমিকায় শাহিদ কাপুরের এই প্রথম পোষ্টারে আত্মপ্রকাশর সারা পরে যায় তার লুক নিয়ে। এদিন সঞ্জয় লীলা বনশালী নিজে তার টুইটার অ্যাকাউন্টে শাহিদ কাপুরের চিতোর রাজা হিসাবে নতুন লুকের ছবির পোষ্ট করে বলেন, “ইনি হলেন চিতোর রাজ মহারাওয়াল রতন সিং, যিনি সাহস সমর্থ আর সম্মানের প্রতিক”। শাহিদ কাপুর তার চরিত্রটি নিয়ে অনেক দিনই নিজেকে প্রস্তুত করছেন।

তিনি বলেন, “একজন রাজার চরিত্রে অভিনয় করতে গেলে, নিজের ব্যক্তিত্বকে পরিবর্তন করতে হয়। সঞ্জয় স্যার আমায় একটু পেশীবহুল চেহারা করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু আমি নিজের ওজনটাকে ঠিক রেখে পেশীবহুল চেহারার থেকেও নির্মেদ চেহারা করেছিলাম। কারন রাজপুত রাজারা খুব স্টাউট হতেন।” সঞ্জয় লীলা বনশালীর সাথে “বাজীরাও-মাস্তানি”-র পর ফের জুটি বাঁধতে চলেছে রণবীর-দীপিকা, উলটে শাহিদ আসতে চলেছে পুরো ভিন্ন রূপে। তাই সব কিছু যদি ঠিকঠাক থাকে তো বনশালী-র “পদ্মাবতী” দর্শকের চোখের সামনে ধরা দিতে চলেছে এ বছরই ১লা ডিসেম্বর।

জেলবন্দি তথাকথিত অপরাধীদের আলোর জগতে ফিরিয়ে এনে নজির স্থাপন করেছেন। মুখোমুখি নৃত্যশিল্পী অলোকানন্দা রায়।