এলাহাবাদ: অর্ধকুম্ভ মেলায় এবার আখড়া দিলেন রূপান্তরকামীরাও। ১৫ জানুয়ারি থেকে শুরু হতে চলা মেলার যা নতুন আকর্ষণ হতে চলেছে। এই প্রথম এমন নজিরবিহীন ঘটনার সাক্ষী থাকতে চলেছেন পুন্যার্থীরা। প্রয়াগরাজের মেলায় এই আখড়ার নাম দেওয়া হয়েছে কিন্নর আখড়া।

কিন্নর আখড়ার প্রধান লক্ষ্মীনারায়ণ ত্রিপাঠিকে। তিনিই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে আখড়া প্রধানের ধর্মীয় শোভাযাত্রা। লক্ষ্মীনারায়ণ ত্রিপাঠি বলেন, “সমাজ এখনও রূপান্তরকামীদের সহজভাবে নেয় না। কিন্তু তাঁরা সকলকে বলতে চান, তাঁরাও এই সমাজেরই সন্তান, সনাতন ধর্মের অবিচ্ছেদ্য অংশ। আরও বেশি করে সমাজে সংযুক্ত হতে চান তাঁরা। রূপান্তরকামীদের কোনও পরিবার নেই, ভালোবাসার জন্য তাঁরা অপেক্ষা করে রয়েছে। ভালোবাসা পেলে এই সমাজকে তাঁরাও ভালবাসায় ভরিয়ে দেবেন।”

অর্ধকুম্ভে যোগ দিয়েছেন বিভিন্ন আখড়ার সন্ন্যাসীরা। তাদের মধ্যেই নজর কাড়বে এই নয়া আখড়া। কিন্নর আখড়া কাশী, প্রয়াগ, হরিদ্বার ও নাসিকেও তাদের আশ্রম খুলতে চায়। অখিল ভারতীয় আখড়া পরিষদ এই সন্ন্যাসীদের সংগঠন, এরা হিন্দু ধর্ম ও সংস্কৃতি রক্ষণাবেক্ষণে কাজ করে। কুম্ভ বেলায় যোগ দেয় সবকটি আখড়া। ইতিমধ্যেই মহানির্বাণী আখড়ার নাগা সাধুরা কুম্ভ মেলায় এসে হাজির হয়েছেন। ছাই ভস্ম মেখে তাঁরা অপেক্ষা করছেন পুণ্য স্নানের। উদ্দেশ্য মোক্ষ লাভ, পুণ্য লাভ।

এই কুম্ভ মেলা চলবে ৪৫ দিন ধরে। এবারের মেলা শুরু হচ্ছে ১৫ তারিখ। যোগ দেবেন অন্তত ১২ কোটি মানুষ। তাঁদের নিরাপত্তা ও বসবাসের জন্য ব্যাপক ব্যবস্থা করেছে সরকার। পাশাপাশি সুরক্ষার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে মেলা অঞ্চলকে। পাশাপাশি এই বছর মাত্র ৫ টাকার টিকিটে ট্রেনে চেপে ঘুরে আসা যাবে এলাহাবাদের কুম্ভমেলায়। এমনই ঘোষণা করেছে রেলমন্ত্রক। তাই এবারে রেকর্ড জনসমাগমের আশা করা হচ্ছে।

মেল এবং এক্সপ্রেস ট্রেনের স্লিপার কোচের ভাড়া ন্যূনতম ১০ টাকা, এসি চেয়ারকার এবং এসি থার্ড ক্লাসের টিকিট শুরু হয়েছে ২০ টাকা থেকে। এসি টু-টিয়ার এবং এসি ফার্স্ট ক্লাসের টিকিট শুরু হয়েছে যথাক্রমে ৩০ ও ৪০ টাকা থেকে।

বিশ্বের বৃহত্তম ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক উৎসব হিসেবে গণ্য এই কুম্ভ মেলা। ইউনেস্কো মেলাকে ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ তকমা দিয়েছে। মানব সভ্যতার অবিচ্ছেদ্য সাংস্কৃতিক উত্তরাধিকার হিসেবে গণ্য হওয়া এই মেলা শেষ হবে ৪ মার্চ।