কলকাতা: ২০২০ সালের পুরসভা ভোটের প্রস্তুতি শুরু করতে চলেছেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম৷ আগামী ৫ নভেম্বর সায়েন্স বাইপাসে পি সি চন্দ্র গার্ডেনে ওই বৈঠক ডেকেছেন তিনি৷ রাজ্যের সব পুরসভার চেয়ারম্যান ও সব পুরনিগমের মেয়রকে ডাকা হয়েছে ওই বৈঠকে৷ ডাকা হয়েছে কেন্দ্রীয় নগরোন্নয়ন মন্ত্রকের অফিসারদেরও৷

২০২১ সালে বিধানসভা নির্বাচন৷ তার আগে শাসক-বিরোধী উভয় পক্ষের কাছেই ২০২০ সালের পুরসভা নির্বাচনটা সেমিফাইনাল৷ শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস দলগত যেভাবে তৈরি হচ্ছে সেরকম প্রশাসনিক ক্ষেত্রেও তারা আঁটঘাঁট বাধছে৷ প্রায়শই কেন্দ্রীয় সরকার অভিযোগ করে, রাজ্য সরকার ঠিক মতো কাজ করছে না। তাই তার জবাব দিতে পুরসভার প্রকল্প ধরে ধরে বিস্তারিত রিপোর্ট তৈরির পরিকল্পনা করা হয়েছে।

আগামী ৫ নভেম্বর পি সি চন্দ্র গার্ডেনে যে বৈঠক ডেকেছেন সেখানে রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর এবং কেন্দ্রীয় নগরোন্নয়ন মন্ত্রকের অফিসারদের ডাকা হয়েছে৷ কেন্দ্রীয় সরকার কত টাকা দিয়েছে, কত টাকা বকেয়া রয়েছে, রাজ্য সরকার প্রকল্প ধরে কত ম্যাচিং গ্র্যান্ট দিয়েছে, তার বিস্তারিত তথ্য আনতে বলা হয়েছে। প্রত্যেকটা পুরসভাকে কাজের তালিকা ও তার হিসেব করে আনতে বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, কেন্দ্রীয় সরকাররের কোন কোন প্রকল্প চলছে, তাতে কত টাকা কেন্দ্র দিয়েছে, রাজ্য সরকার কত ম্যাচিং গ্র্যান্ট দিয়েছে, সেই নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হবে। কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে কত টাকা বকেয়া রয়েছে, তাও পরিষ্কার হয়ে যাবে। কেন্দ্রের নগরোন্নয়ন মন্ত্রকের অফিসারদের সামনেই সেই আলোচনা হবে। এজন্য প্রতিটি পুরসভাকে তাদের পুর এলাকায় কাজের অগ্রগতির রিপোর্ট নিয়ে আসতে হবে। পুরসভার কাজের গতি বাড়াতেই এই বৈঠক করা হচ্ছে।

যেহেতু সামনেই ভোট তাই নাগরিক পরিষেবায় গুরুত্ব দিতে চাইছে রাজ্য সরকার৷ কালীপুজো মিটে গেলে প্রতিটি পুরসভায় যাতে জোরকদমে কাজ হয়, তার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷