কলকাতা: বৃহস্পতিবার দুপুরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড আনন্দপুরে। গাড়ির সার্ভিস সেন্টারে আগুন লেগে কমপক্ষে ৩৫টি গাড়ি ভস্মীভূত হয়ে গিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন ভয়াবহ আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে গাড়ি সহ গুরুত্বপূর্ণ নথি। তবে দমকলের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসলেও ধোঁয়া এখনও রয়েছে। দমকল এখনও ঘটনাস্থলে রয়েছে।

তবে, এই ঘটনায় কোনও হতাহতের খবর নেই। ঘটনাস্থলে উপস্থিত রয়েছেন রাজ্যের দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু এবং তৃণমূলের সাংসদ মিমি চক্রবর্তী।

পুলিশ জানিয়েছে, আরও ঘটনা কেন ঘটল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সুজিত বসু ঘটনাস্থল থেকে জানিয়েছেন, “দমকল দ্রুত গতিতে কাজ করছে”। তৃণমূলের সাংসদ মিমি চক্রবর্তী জানিয়েছেন, “অগ্নিকান্ডের বিষয়ে সরকার যততা দায়বদ্ধ পাশাপাশি যে সংস্থা কাজ করছে তাঁদের নিজের সজাগ থাকার প্রয়োজন  আছে”।

ওই সংস্থার অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। অত নামকরা কোম্পানির সার্ভিস সেন্টারে কেন এমন ঘটনা ঘটল তা নিয়ে প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে। তবে ভবিষ্যতে এইরকম ঘটনা যাতে না ঘটে সেদিকেও নজর দেওয়া প্রয়োজন বলেও জানিয়েছেন দায়িত্বপ্রাপ্তরা।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও