স্টাফ রিপোর্টার, তমলুক: মুদির দোকানে আগুন লাগার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল রামনগর থানার ঠিকরা এলাকায়৷ ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় লক্ষাধিক টাকা৷ ঘটনায় হতাহতের কোনও খবর নেই৷ ঘটনায় দিঘা-নন্দকুমার ১১৬ বি জাতীয় সড়কের উপর ঠিকরা মোড়ে বেশ কিছু সময় যানজট সৃষ্টি হয়। রামনগর থানার পুলিশের চেষ্টায় তা নিয়ন্ত্রণে আসে৷

মঙ্গলবার বিকেলে হঠাৎই ওই দোকান থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখে স্থানীয়রা৷ ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন তাঁরা৷ আগুন নেভানোর কাজে হাত লাগান তাঁরা৷ খবর দেওয়া হয় দমকলে৷ পাশাপাশি খবর দেওয়া হয় ওই মুদি দোকানের মালিককে৷ কিচ্ছুক্ষণের মধ্যে নিমতলা থেকে দমকলের একটি ইঞ্জিন এসে আগুন নেভায় ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

মুদির দোকানের মালিক বাবুলাল দাস বলেন, ‘রোজের মতো দুপুরে দোকান বন্ধ করে বাড়িতে খেতে গিয়েছিলাম৷ তখনই স্থানীয়রা খবর দেয় আমার দোকানে নাকি আগুন লেগেছে৷ তবে কীভাবে আগুন লাগলো তা বুঝতে পারছি না। দোকানের সরঞ্জাম-সহ মালপত্র সব মিলিয়ে প্রায় লক্ষাধিক টাকা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।’

দমকল আধিকারিকদের প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, ইলেকট্রিক শর্ট সার্কিট থেকে দোকানে আগুন লেগেছ। স্থানীয় বাসিন্দা কৌশিক বারিক জানান, দিনদুপুরে এই ধরনের ঘটনায় এলাকার মানুষদের মধ্যেও আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। দমকল আসার আগেই স্থানীয়দের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসা সম্ভব হয়েছে।