স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: ‘করোনা’ সতর্কতায় দেশ জুড়ে ‘লক ডাউন’ চলছে। এর মাঝেই মঙ্গলবার বাঁকুড়ার ‘ফুসফুস’ হিসেবে হিসেবে পরিচিত শুশুনিয়া পাহাড়ে আগুন লাগে। বুধবার ফের দুঃসংবাদ! এবার জেলার ‘শিল্পশহর’ বড়জোড়ায় বড়সড় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটলো। পুড়ে ছাই হয়ে গেল শহরের ‘বিজয়া ময়দান’ সংলগ্ন প্রায় ২০০ দোকান। ক্ষতির পরিমান বেশ কয়েক লক্ষ টাকা।

এই ঘটনায় দমকলের দায়িত্বশীল ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। ঘটনার পর প্রায় দেড় ঘন্টা পর দমকল পৌঁছায় বলে অভিযোগ। একই সঙ্গে জনঘনবসতিপূর্ণ এই শিল্প শহরে দমকল স্থাপনের দাবীও জোরালো হচ্ছে।

স্থানীয় বাসিন্দা ও সিপিএম নেতা সুজয় চৌধুরী বলেন, দুপুর তিনটে নাগাদ বাজারে আগুন লাগে। দমকলে খবর দেওয়ার প্রায় দেড় ঘন্টা পর তারা পৌঁছায়। সমস্ত অস্থায়ী দোকান পুড়ে ছাই। স্থানীয় মানুষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা না নিলে বড়সড় ক্ষতির সম্মুখীন হতো বড়জোড়া। দ্রুততার সঙ্গে এখানে দমকল কেন্দ্র তৈরীর দাবি জানান তিনি।

স্থানীয় বাসিন্দা ও তৃণমূল নেতা সুখেন বিদ বলেন, ভয়ানক ক্ষতি হয়েছে। অনেক বেকার যুবকের রুটি রুজির রাস্তা বন্ধ হয়ে গেল। প্রশাসনিকভাবে তাদের পাশে দাঁড়ানো হবে বলে তিনি জানান।

এই মুহূর্তৃ দমকলের তিনটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নেভানোর কাজ করছে। প্রাথমিকভাবে বৈদ্যুতিক শর্ট শার্কিট থেকেই আগুন লেগেছে বলে মনে করা হচ্ছে।