স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সম্পর্কে সোশ্যাল মিডিয়ায় কুরুচিকর পোস্ট করায় বিশিষ্ট সাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের মেয়ে দেবলীনা মুখোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে এফআইআর করলো বিজেপি যুব মোর্চা। শীর্ষেন্দু কন্যার কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছে তারা। মোদীর এই মোমবাতি জ্বালানোর নিদানকেই কটাক্ষ করে ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাঙ্গাত্মক পোস্ট ছেয়ে গিয়েছে। সেরকমই একটি পোস্ট করেছিলেন শীর্ষেন্দু কন্যা দেবলীনা মুখোপাধ্যায়।

পোস্টে প্রধানমন্ত্রীর দাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার কথা লিখেছিলেন দেবলীনা। লালবাজার সাইবার ক্রাইম বিভাগে মেল করে অভিযোগ জানান যুব মোর্চার সর্বভারতীয় সম্পাদক সৌরভ শিকদার। সৌরভ শিকদারের অভিযোগ, পরিকল্পিতভাবে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়ানোর চেষ্টা করে চলেছেন দেবলীনা। যার ফলে সমাজের শৃঙ্খলা বিঘ্নিত হতে পারে। যা কখনোই কাম্য নয়! অভিযোগনামায় তিনি আরও বলেছেন, স্বনামধন্য সাহিত্যিক পিতা শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের নাম ভাঙিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অপমানসূচক কথা বলে বে়ড়াচ্ছেন দেবলীনা।

তাই কলকাতা তথা রাজ্য পুলিশকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে এই ইস্যুটিকে দেখার আবেদন জানানো হয়েছে। এমনকি, অবিলম্বে দেবলীনা মুখোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে কঠোর মামলা দায়ের করার কথাও সংবাদমাধ্যমের কাছে জানিয়েছেন তিনি। উল্লেখ্য, রবিবার দেশবাসীর কাছে ৯ মিনিট সময় চেয়ে নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

শুক্রবার সকাল ন’টায় দেশবাসীর উদ্দেশে করোনা নিয়ে ভাষণ দিতে গিয়ে তিনি বলেন, “৫ এপ্রিল আপনাদের সকলের কাছ থেকে ৯ মিনিট সময় চেয়ে নিচ্ছি। ওই দিন রাত ৯টায় ৯ মিনিটের জন্য সকলে ঘরের আলো নিভিয়ে রাখুন।” পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, “ওই সময় বাড়িতে থেকেই প্রদীপ, মোমবাতি, টর্চ জ্বালান। তাও যদি না হয়, মোবাইলের ফ্ল্যাশ লাইট জ্বালান।” মোদীর এই আবেদনের পর নানা মহলে প্রশ্ন উঠেছে যে, মোমবাতি, প্রদীপ জ্বালিয়ে করোনাকে কি আদৌও ধ্বংস করতে পারবেন প্রধানমন্ত্রী?